• আজ রবিবার। গ্রীষ্মকাল, ৫ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। ১৮ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ। বিকাল ৩:৫৫মিঃ

চলচ্চিত্র থেকে নিষিদ্ধ করায় ক্ষোভ প্রকাশ করে যা বললেন শাকিব খান

২:০৯ অপরাহ্ন | রবিবার, এপ্রিল ৩০, ২০১৭ বিনোদন

বিনোদন প্রতিবেদক, সময়ের কণ্ঠস্বর- চিত্রনায়ক শাকিব খানকে ঢাকাই চলচ্চিত্র থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। গত দুইদিন ধরে চলচ্চিত্রাঙ্গন সহ মিডিয়ার সর্বত্র এ আলোচনাই গল্পের খোরাক যোগাচ্ছে।

FB_IMG_1493498653217চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি, গ্রাহক সংস্থা, ফিল্ম এডিটরস গিল্ড, ফাইট ডিরেক্টর অ্যাসোসিয়েশন, নৃত্য পরিচালক সমিতি, স্থিরচিত্র গ্রাহক সমিতি, সহকারি চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিসহ আরও কয়েকটি সংগঠন শাকিব খানকে অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ করেন।

শনিবার সন্ধ্যায় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিতে চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট সকল কুশলীদের সংগঠনের যৌথ এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। তার সঙ্গে কোনো চলচ্চিত্রের শুটিং ও ডাবিংয়ের কাজেও অংশ না নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতিসহ সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে চলচ্চিত্র থেকে নিষিদ্ধ ঘোষণার প্রতিক্রিয়ায় পাবনায় শামীম আহমেদ রনির ‘রংবাজ’-এর সেট থেকে মুঠো ফোনে শাকিব জানায়, পরিচালক সমিতির মহাসচিব তার ক্ষমতা দেখাচ্ছেন। বদিউল আলম খোকন একজন অশ্লীল ছবির পরিচালক ছিলেন, তার নামে মামলা হয়েছিল। নিয়মিত হাজিরা দিতেন সে মামলায়, নিষিদ্ধ পরিচালক ছিলেন তিনি। সেখান থেকে তাকে শাকিব খানই বদিউল আলম খোকন বানিয়েছে। বাপ্পারাজ তার সাক্ষাৎকারে সে কথাই বলেছেন।

শাকিব বলেন, আজ বাপ্পারাজসহ নায়ক ফারুক, বাপ্পি, পরিচালক কাজী হায়াত প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। সমস্ত শিল্পী সমাজ প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। সত্য কখনো গোপন থাকে না। আমার বিরুদ্ধে বিরাট চক্রান্ত হচ্ছে। আজ যদি ভেঙ্কটেশ ফোন করে বলেন, যা শুটিং হয়েছে ওখানে সব ফেলে দিয়ে এখানে শুটিং কর এখানকার ক্রু দিয়ে, সেটা কি ভাল হবে? এটা কি বাংলাদেশের জন্য লজ্জার হবে না? আমি দুইশ টেকনিশিয়ান নিয়েছি এখানকার। সেটা করলে তাদের পরিবারের রুটি-রুজিতে আঘাত করা হবে না?

এক প্রশ্নের জবাবে শাকিব বলেন, আমি সংবাদ সম্মেলন করব। আমাকে অনেক দিক থেকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে – আইন-প্রশাসন সবকিছু দিয়ে। বিরাট চক্র তাদের সাথে কাজ করছে। আমি এ মাটিরই সন্তান, দেহে শেষ রক্ত বিন্দু থাকা পর্যন্ত অন্যায়ের প্রতিবাদ করেই যাবো, মাথা পেতে নেব না।

এদিকে বাংলা চলচ্চিত্র থেকে শাকিবকে নিষিদ্ধ করায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বইছে। অনেকেই এটা একটা ষড়যন্ত্র বলে দাবি করেছেন। আর এর জন্য চলচ্চিত্র পরিচালক বদিউল আলম খোকনকে দায়ী করেছেন।

বাংলা চলচ্চিত্রের ‘সুপারস্টার’ দাবীদার শাকিব খানকে অনির্দিষ্টকালের জন্য নিষিদ্ধ করায় প্রকাশ্যে কিংবা অভিনেতা-অভিনেত্রী থেকে শুরু করে ফেসবুকে পরিচালক সমিতির এ সিদ্ধান্তকে কেউ স্বাগত জানিয়ে পক্ষে, আবার কেউবা বিপক্ষে মন্তব্য করছেন।