সংবাদ শিরোনাম

ছাত্রলীগ নেতার প্যান্ট চুরির ভিডিও ভাইরাল!পাটগ্রামে ইউএনও’র উপর হামলা, আটক ৬আগের সব রেকর্ড ভেঙ্গে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু ৮৩ জনেরশফী হত্যা মামলা: মামুনুল-বাবুনগরীসহ ৪৩ জনকে অভিযুক্ত করে প্রতিবেদনখালেদা জিয়ার রোগমুক্তি কামনায় সারাদেশে দোয়া কর্মসূচিরোহিঙ্গা শিবিরে ফের অগ্নিকান্ডসালথায় তান্ডব: এসিল্যান্ডের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগের সত্যতা মিলেনিশাহজাদপুরে কৃষকদের মাঝে হারভেস্টার মেশিন বিতরণচাঁদপুরে গণমাধ্যম সপ্তাহের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পেতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপিশ্রমিকদের যাতায়াতের ব্যবস্থা না করলে আইনি পদক্ষেপ : শ্রম প্রতিমন্ত্রী

  • আজ ৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

টাঙ্গাইলের দেলদুয়ারে পুলিশের সামনেই প্রতিপক্ষের অাঘাতে বৃদ্ধের মৃত্যু

৮:৩৬ অপরাহ্ন | রবিবার, এপ্রিল ৩০, ২০১৭ দেশের খবর

অন্তু দাস হৃদয়, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলে দেলদুয়ার উপজেলায় জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে পুলিশের সামনেই প্রতিপক্ষের আঘাতে ছানা মোহন ঘোষ (৭২) নামে এক বৃদ্ধের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে।

আজ রোববার বিকেলে দেলদুয়ার উপজেলার পাথরাইল এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটার পর প্রতিপক্ষ চৈতন্য রায় তার পরিবার নিয়ে গাঁ ঢাকা দিয়েছেন।

18157513_1688030348166449_957949119906446484_nপ্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ছানা মোহন ও চৈতন্য রায়ের সাথে বেশ কিছুদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। একই এলাকার নরেন্দ্র ঘোষের ৬শতাংশ জমি ক্রয় করে চৈতন্য রায়। এতে শর্ত থাকে এক হাত বরাবর রাস্তা থাকবে। শর্তানুযায়ী নরেন্দ্র ঘোষ এক হাত রাস্তাও দিয়েছেন। চৈতন্য বর্তমানে নরেন্দ্র ঘোষের বড় ভাই ছানা মোহন ঘোষের কাছে গাড়ি প্রবেশের জন্য অতিরিক্ত জায়গা দাবি করায় বিরোধের সূত্রপাত হয়।

এ দিকে এক হাতের বেশি জায়গা রেখে ছানা মোহন ঘোষ বাড়িতে পাকা ঘর নির্মান করছেন। এরই ধারাবাহিকতায় রোববার দুপুরে দেলদুয়ার থানা পুলিশ ও উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম ফেরদৌসসহ বেশ কয়েকজন স্থানীয় মাতাব্বর জায়গাটি পরিদর্শনে ও বিরোধ মিমাংশা করতে ঘটনাস্থলে আসে। পরে, অালোচনার এক পর্যায়ে কথা কাটা-কাটি শুরু হয়।

এ সময় চৈতন্য উত্তেজিত হয়ে ছানা মোহনকে শারীরিকভাবে আঘাত করে। এরপর তিনি মাটিতে পরে যান। আহত অবস্থায় তাকে টাঙ্গাইল মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

নিহত ছানা ঘোষের মেয়ে বাসন্তি ঘোষ। স্ত্রী দুলালী ঘোষের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান , ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সহ এলাকাবাসী সিনেমা নির্ধারণ করে গেছেন। সে মতে এক হাতের অধিক হাটার রাস্তা রেখে পাকা ঘর তৈরি করা হচ্ছে। কিন্তু চৈতন্য ক্ষমতার দাপটে গাড়ি প্রবেশের রাস্তা চেয়ে আসছে।

রোববার দুপুরে পুলিশ ও ভাড়াটে লোক এনে জোড় পূর্বক রাস্তা বাড়ানোর চেষ্টা করলে এক সময় এসআই ইসতিয়াক আরাফাত রাস্তা বাড়ানোর পক্ষে থাকায় সাহস পেয়ে চৈতন্য রায় উগ্র হয়ে ছানা মোহন ঘোষকে আঘাত করলে তিনি মারা যান।

এ ব্যাপারে পাথরাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হানিফুজ্জামান লিটন বলেন, এর আগে আমি জায়গাটা পরিদর্শন করে একহাতের বেশি রাস্তা রাখার পরামর্শ দিয়ে ছিলাম। কথা অনুসারে রাস্তা রেখেছিল। আজ হঠাৎ উপজেলা থেকে লোকজন আসার পরই এ ঘটনা ঘটে।

দেলদুয়ার উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম ফেরদৌস আহমেদ সময়ের কন্ঠস্বর’ কে জানান , আমি শুনেছি সে স্ট্রোক করে মারা গেছেন। তবে প্রতিবেশীদের চলাচলের জন্য আরেকটু রাস্তা রাখলে ভাল হতো।

এ ঘটনার ব্যাপারে দেলদুয়ার থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো : মোশারফ হোসেন জানান, সীমানা নিয়ে দু’পক্ষের বিরোধ চলছিল। উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের সাথে থানা পুলিশ গিয়েছিল। তবে এই মৃত্যুর ব্যাপারে এখনও কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেব।