• আজ ২৮শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মেজর জিয়ার পরামর্শে সংগঠনের জন্য সদস্য সংগ্রহ করতেন আশফাক

১:১২ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, মে ২, ২০১৭ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সামরিক বিভাগের আইটি শাখার প্রধান আশফাক-উর-রহমান অয়ন ওরফে আরিফ ওরফে অনিক পলাতক জঙ্গি নেতা মেজর জিয়ার ঘনিষ্ঠ সহযোগী হিসেবে কাজ করতেন। এবং মূলত তারই পরামর্শে সংগঠন গোছানো, সদস্য সংগ্রহ ও তাদের প্রশিক্ষণ কাজ পরিচালনা করতেন আশফাক।

news_photoমঙ্গলবার দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে কাউন্টার টেররিজম ইউনিটের প্রধান ও অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।

এর আগে সোমবার রাতে রাজধানীর ভাটার এলাকা থেকে আশফাককে আটক করে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট (সিটিটিসি)।

সংবাদ সম্মেলনে মনিরুল ইসলাম বলেন, আশফাক-উর-রহমানকে গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি বলেছেন, জঙ্গি নেতা মেজর জিয়ার সঙ্গে তার কয়েকমাস আগে যোগাযোগ হয়েছে। এর আগে তার সঙ্গে সরাসরি কথা হয়েছে বলে জানিয়েছে। তবে এই মুহূর্তে জিয়া কোথায় আছে তা তিনি বলতে পারেননি। ঢাকার বাইরে কোনো এক জায়গায় জিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছে তা তিনি বলেছেন। রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদে বিস্তারিত জানা যেতে পারে বলে জানান মনিরুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ২০১৪ সালে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগে পড়াকালীন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমে যোগ দেন আশফাক। ২০১৫ সালে তিনি সামরিক বিভাগে যোগ দেন। এ সময় তিনি মেজর জিয়ার পরামর্শে উত্তরায় ও পল্লবীর কালাপানি এলাকায় নাস্তিক ব্লগার হত্যা সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রশিক্ষণে অংশ নেন। এরপর তিনি সামরিক বিভাগের আইটি শাখার প্রধান হিসেবে কাজ শুরু করেন।

আশফাককে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। এ পর্যন্ত যে ব্লগারদের হত্যা করা হয়েছে সেসব হত্যায় তার সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেলে দায়েরকৃত মামলাগুলোতে গ্রেফতার দেখানো হবে। পাশাপাশি আপাতত সন্ত্রাসবিরোধী মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।