রাজশাহীতে এসএসসি পরীক্ষা ফরম পূরণে অতিরিক্ষ অর্থ আদায়

৯:২৪ অপরাহ্ন | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২৩, ২০১৭ শিক্ষাঙ্গন

ওবায়দুল ইসলাম রবি, রাজশাহী ব্যুারো:
রাজশাহীর পুঠিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসি ও পরীক্ষায় ফরম পূরণের লক্ষে শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে আদায় করা হচ্ছে বাড়তি টাকা।শেসন ফি, কেন্দ্র ফি, বোর্ড ফিসহ নানা অজুহাতে ০১ হাজার ৬০০ থেকে ৭৫০ টাকা পর্যন্ত আদায় করা হচ্ছে।

শিক্ষা বোর্ড নির্ধারিত টাকার বাইরেও অতিরিক্ত অর্থ আদায় করা হয়েছে এ বিদ্যালয়টিতে। এসএসসি পরীক্ষার ফরম পূরণের ক্ষেত্রে রাজশাহী জেলার কোনো স্কুলেই শিক্ষা বোর্ড নির্ধারিত ফি আদায় করা হয়নি। প্রত্যেকটি স্কুলেই অতিরিক্ত অর্থ আদায় করা হয়েছে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে আদায় করা হচ্ছে দুই হাজার ৫০০ টাকা থেকে তিন হাজার ৫০০ টাকা পর্যন্ত।

এবিষয়ে পুঠিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সাত্তার বলেন, ‘শিক্ষা বোর্ডের বাইরে শুধু কেন্দ্র ফি ধরা হয়েছে। আর কিছু টাকা ধরা হয়েছে স্কুলের শেসন ফি বাবদ। এর বাইরে কোনো ফি আদায় করা হচ্ছে না। শিক্ষার্থীর অভিযোগ সঠিক নয় বলে তিনি দাবি করেছেন। আপরদিকে উপজেলার এসআর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শিবলী খাতুন বলছেন একই কথা।

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড সূত্র মতে, ২০১৮ সালের এএসসি পরীক্ষার জন্য এবার অনলাইনে ফরম পূরণের সময়সীমা নির্ধারণ করা হয় ৭ থেকে ১২ নভেম্বর পর্যন্ত। তবে বিলম্ব ফি দিয়ে ১৪ থেকে ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত অনলাইনে ফরম পূরণ করার কথা বলা হলেও পরবর্তিতে বিলম্ব ফিসহ সময় বৃদ্ধি করা হয়েছে ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত। শিক্ষা বোর্ড থেকে এবার মানবিক বিভাগের জন্য ফি নির্ধারণ করা হয় ১ হাজার ১১০ টাকা এবং বিজ্ঞান বিভাগের জন্য নির্ধারণ করা হয় ১ হাজার ২১০।

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ড সূত্রে মতে ২০১৭ এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফরম পূরণে প্রতি পত্রের জন্য ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ৮০ টাকা। প্রতি পত্রের ব্যবহারিক ফি ৩০ টাকা, শিক্ষার্থী প্রতি ট্রান্সক্রিপ্ট ফি ৩৫ টাকা, মূল সনদ ফি ১০০ টাকা, স্কাউট ও গার্লস গাইড ফি ১৫ টাকা, শিক্ষা সপ্তাহ ফি পাঁচ টাকা এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতি বার্ষিক ক্রীড়া অ্যাফিলিয়েশন ফি নির্ধারণ করা হয়েছে ৩০০ টাকা।

এ ছাড়া ব্যবহারিক নেই এমন শিক্ষার্থীদের কেন্দ্র ফি ২৫০ টাকা এবং যাদের ব্যবহারিক আছে তাদের ফি ৩০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে অনিয়মিত শিক্ষার্থীদের অতিরিক্ত ১০০ টাকা ফি দিতে হবে। ফলে সব মিলিয়ে একজন নিয়মিত শিক্ষার্থীকে ফরম পূরণের জন্য মানবিক বিভাগের একজন শিক্ষার্থীতে দিতে হবে সর্বোচ্চ ০১ হাজার ৩৭০ টাকা এবং বিজ্ঞান বিভাগের জন্য সর্বোচ্চ ফি দিতে হবে এক হাজার ৫৫০ টাকা।

 

এছাড়া রাজশাহী নগরীর নজমুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থীর অভিভাবক বলেন, বোর্ডের নিয়ম অমান্য করে বাড়তি টাকা আদায় করা হয়েছে। আরেক অভিভাবক বলেন, রাজশাহী নগরী থেকে থেকে শুরু করে জেলার প্রত্যেকটি স্কুলে অতিরিক্ত হারে অর্থ আদায় করা হয়েছে বা এখনো হচ্ছে।

অনিয়ম সম্পর্কে জানতে চাইলে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক তরুণ কুমার সরকার বলেন, ‘এসএসসি পরীক্ষার ফরম নির্ধারিত ফি সংক্রান্ত বিষয় শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে দেওয়া আছে। এর বাইরে কোনো প্রতিষ্ঠান টাকা আদায় করলে এবং সে বিষয়ে অভিযোগ উঠলে আমরা তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।