সংবাদ শিরোনাম

বয়স ১০০ ছুঁইছুঁই, দুলি খাতুনের ভাগ্যে কবে জুটবে বয়স্ক ভাতা?ওয়ান শুটারগান ও গুলিসহ আনোয়ারার গেট্টু নাছির গ্রেপ্তারপ্রয়োজনে আরও ভ্যাকসিন কেনা হবে: প্রধানমন্ত্রীটাঙ্গাইলে যৌন হয়রানি ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে প্রধান শিক্ষক বরখাস্তজামালপুরে বাগানে মিলল তরুণীর ঝুলন্ত লাশ, মৃত্যু নিয়ে রহস্যসুবর্ণচরে ধর্ষণের শিকার হয়ে স্কুলছাত্রীর আত্নহত্যাভোটের অধিকার আদায়ে প্রয়োজনে আন্দোলনে নামবে জাতীয় পার্টি: বাবলুরাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যেতে তাবিথকে ‘বাধা’গাজীপুরে সকল ট্রেনের যাত্রাবিরতির দাবিতে অবস্থান ধর্মঘটচমেকে অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, ব্যাপক ভাঙচুর

  • আজ ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

৭ মার্চের ভাষণের স্বীকৃতি উদযাপনে সারাদেশে ‘আনন্দ শোভাযাত্রা’

৫:১৩ অপরাহ্ন | শনিবার, নভেম্বর ২৫, ২০১৭ ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণকে ইউনেসকো ‘বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য’হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ায় আজ শনিবার দেশজুড়ে আনন্দ শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সরকারি উদ্যোগে আয়োজিত এই শোভাযাত্রাকালে রাজধানী ঢাকা ছাড়াও দেশজুড়ে জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন, সমাবেশ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বঙ্গবন্ধুর ভাষণ প্রচার, আলোকচিত্র, প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শনসহ অন্যান্য অনুষ্ঠানমালারও আয়োজন করা হয়। সময়ের কণ্ঠস্বরের প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদ-

চাঁপাইনবাবগঞ্জ- শনিবার সকালে শহরের সরকারী কলেজ মোড়ে বঙ্গবন্ধু মুক্ত মঞ্চে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন সদর আসনের সাংসদ আব্দুল ওদুদ, জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হাসান সহ মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী দপ্তর, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন ও ব্যক্তি।

পরে জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্বর থেকে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা শহর প্রদক্ষিণ করে বঙ্গবন্ধু মুক্ত মঞ্চ চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। বর্ণিল সাজে সজ্জিত শোভাযাত্রায় অংশগ্রহন করেন মুক্তিযোদ্ধা, জনপ্রতিনিধি, সরকারী বেসরকারী কর্মকর্তা,রাজনৈতিক,সামাজিক ও সাংস্কৃতিক নেতা-কর্মী, বিভিন্ন সংগঠন, নারী, শিশু, কিশোর, ক্রীড়াবিদ, এনজিও প্রতিনিধি, স্কাউটস, আনসার ও ভিডিপি এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বাদক দল এবং সর্বস্তরের জনতা।

জাতীয় পতাকা, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের বাণী লেখা প্ল্যাকার্ড, আবহমান গ্রাম বাংলার গরুর গাড়ী, ঘোড়ার গাড়িসহ বিভিন্ন ফেস্টুন শোভাযাত্রাকে আকর্ষনীয় করে তোলে।

বিকেলে সরকারী কলেজ শহীদ মিনারে মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক চলচিত্র প্রদর্শনী, আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এছাড়া, চাঁপাইনবাবগঞ্জস্থ এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় মিলনায়তনে বিকেলে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

এর আগে সকালে শহরের গ্রীন ভিউ উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় শিশুদের চিত্রাংকন, রচনা প্রতিযোগিতা।

শিবগঞ্জ (চাঁপাইনবাবগঞ্জ)- উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে শনিবার সকালে শিবগঞ্জ কারবালা মোড় থেকে একটি আনন্দ শোভাযাত্রা বের করে পৌর এলাকার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে গিয়ে আলোচনা সভায় মিলিত হয়।

সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, শিবগঞ্জ পৌর মেয়র কারীবুল হক রাজিন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো: বরমান হোসেন, শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ হাবিবুল ইসলাম হাবিব, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. আতাউর রহমান, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আতিকুল ইসলাম টুটুল খাঁনসহ অন্যরা।

সভায় বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণকে ইউনেস্কো ঐতিহাসিক দলিল হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ায় বঙ্গবন্ধুর বিভিন্ন স্মৃতিচারণ তুলে ধরেন বক্তারা। এছাড়াও শোভাযাত্রায় উপজেলা বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও বিভিন্ন শিক্ষা-সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন, জনপ্রতিনিধি, ও ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব ও শিশু-কিশোররা অংশগ্রহণ করেন।

ময়মনসিংহ- শনিবার সকাল ১১ টায় ধর্মমন্ত্রী প্রিন্সিপাল মতিউর রহমানের নেতৃত্বে শহরের সার্কিট হাউজ মাঠ থেকে বিশাল আনন্দ শোভাযাত্রা বের হয়ে নগরির বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে।

ময়মনসিংহের বিভাগীয় কমিশনার জিএম সালেহ উদ্দিন, পুলিশের ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি, জেলা প্রশাসক (ডিসি) খলিলুর রহমান, ময়মনসিংহ র‌্যাব-১৪’র কমান্ডিং অফিসার লে. কর্ণেল শরীফুল ইসলাম, অতিরিক্ত ডি আইজি ড, আক্কাছ উদ্দিন ভুইয়া, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ইউসুফ খান পাঠান, জেলা আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, মহানগর যুবলীগ সভাপতি শাহীনুর রহমান প্রমুখগণ ধর্মমন্ত্রীর সাথে আনন্দ শোভাযাত্রায় অংশগ্রহন করে।

শোভা যাত্রার পুর্বে জেলা প্রশাসক (ডিসি) খলিলুর রহমান অতিথিদের নিয়ে সার্কিট হাউজ মাঠের উত্তর অংশে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। শোভাযাত্রায় নগরীর ৪৮ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা কর্মচারীরা অংশ নেন। শোভা যাত্রা চলাকালে শহরের বিভিন্ন সড়কে সৃষ্টি হয় অসহনীয় যানজট।

আনন্দ শোভাযাত্রা শেষে বিকেল পৌনে ৪টায় টাউন হলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং বিকেল সাড়ে ৪টায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে ওরা এগারো জন নামের চরচিত্র’ প্রদর্শিত হয়।

গফরগাঁও (ময়মনসিংহ)– শনিবার সকাল সোয়া ১১টায় টায় দিকে গফরগাঁও উপজেলা পরিষদ মাঠ থেকে স্থানীয় এমপি ফাহমী গোলন্দাজ বাবেলের নেতৃত্বে একটি বিশাল শোভাযাত্রা বের হয়ে পৌরশহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এই সফল শোভা যাত্রার আয়োজন করেন উপজেলা প্রশাসন গফরগাঁও।

এ সময় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন বাদল, ইউএনও ডা. শামীম রহমান, পৌর মেয়র ইকবাল হোসেন সুমন, গফরগাঁও থানার ওসি আব্দুল আহাদ খান, পাগলা থানার ওসি মোঃ মোখলেছুর রহমান আকন্দ,স্থানীয় এমপির একান্ত সচিব ও উপজেলা আ’লীগ নেতা মাসুদ হোসেন সোহেল, উপজেলা আ’লীগ নেতা আবুল কাশেম, উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার এলজি ই ডি তোফাজ্জল হোসেন, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা’ আলম আরা, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা’ সুলতান আহম্মেদ, সালটিয়া ইউপির চেয়ারম্যান ও উপজেলা আ’লীগ নেতা নাজমুল হক ঢালী উপজেলা যুবলীগ সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা আতাউর রহমান, সেচ্ছাসেবকলীগ আহবায়ক আওরঙ্গ হেলাল, উপজেলা যুবলীগ নেতা এম এ কাউছার, মাহমুদ হাসান সজিব, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মেহেদী হাসান সানিল, সাধারন সম্পাদক শরীফুল ইসলাম মন্ডল, প্রজম্মলীগ আহবায়ক জোবায়ের হোসেন সুমন, পৌর ছাত্রলীগ সভাপতি শাকিব মোহাম্মদ সিয়াম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আনন্দ উল্লাসের এ শোভা যাত্রায় মিছিলে মিছিলে অংশগ্রহন করেন উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন পর্যায়ের আ’লীগ ও তার সহযোগী সকল সংগঠনের নেতা কর্মী সমর্থকরা।

এ ছাড়াও রাজনৈতীক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন স্তরের জনপ্রতিনিধি থেকে শুরু করে উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, শিক্ষার্থীরা এতে অংশগ্রহণ করেন। উপজেলার সরকারী আধা সরকারি সকল দফতরের কর্মকর্তা, কর্মচারিরাও আনন্দ উল্লাসের এই শোভা যাত্রায় অংশগ্রহন করে।

পরিচ্ছন্ন’ পরিপাটি, রঙ-বেরঙ্গে সাজে বের হওয়া বিশাল শোভাযাত্রাটি আয়োজকসহ উপস্থিত সর্বস্তরের মানুষকে পরিপূর্ণতার পাশাপাশি করেছে মনোমৃগ্ধ। দীর্ঘ পৌনে ২ কিলোমিটার লম্বা শোভা যাত্রাটি বের হলে গফরগাঁও উপজেলা সদর রুপ নেয় জনসমুদ্রে, পৌর শহরের মোড়ে মোড়ে সৃষ্টি হয় অসহনীয় যানজটের ।

ঠাকুরগাঁও-  শনিবার সকালে জেলা পরিষদ ডাকবাংলো চত্বরের জাতির পিতা প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন এমপি।
এ সময় জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল, পুলিশ সুপার ফারহাত আহমেদ,জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সাদেক কুরাইশী পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

এ ছাড়া ব্রিটিশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের চেয়ারম্যান মাহফুজ কবিরসহ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও সহযোগী ও সংগঠন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শ্রেণিপেশার মানুষ ফুল দিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান।

সকাল ১০টায় এ উপলক্ষে ‘ আনন্দ শোভাযাত্রায়’ জনপ্রতিনিধি ও রাজনৈতিক ব্যক্তি, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী, শিশু-কিশোর, ক্রীড়া সংগঠক ও খ্যাতিমান ক্রীড়াবিদ, সাংস্কৃতিককর্মী ও সংগঠক, শিল্পকলা একাডেমি, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, এনজিও, স্কাউটস ও রোভারের সদস্যরা অংশ নেবেন।

শ্রীপুর (গাজীপুর)- শনিবার সকালে শ্রীপুর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শোভাযাত্রাটি বের হয়। গাজীপুর-৩ আসনের এমপি এ্যাড. রহমত আলীর নেতৃত্বে উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার একই স্থানে এসে শেষ।

র‌্যালী পরবর্তী আলোচনা সভায় এস এম ফাতেমার সঞ্চলনায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) রেহেনা আকতারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সাংসদ এ্যাড. রহমত আলী।

এসময় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল, শ্রীপুর পৌর মেয়র আনিছুর রহমান, উপজেলা বাইস চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম মন্ডল বুলবুল প্রমুখ। এসময় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

ঘাটাইল (টাঙ্গাইল)- সকালে ঘাটাইল জিবিজি বিশ্ব বিশ্ববিদ্যালয় মাঠ থেকে এক বর্নাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। বিশাল শোভাযাত্রা শহরের বিভিন্ন সড়ক পদক্ষিন করে উপজেলা পরিষদের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

শোভাযাত্রায় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, উপজেলা প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা কর্মচারী, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক- শিক্ষার্থী সহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন অংশ নেয়। শোভাযাত্রা শেষে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে আলোচনা সভা ও সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল কাশেম মুহাম্মদ শাহীনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম খান সামু, জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট এস আকবর খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক শহিদুল ইসলাম লেবু, যুগ্ম আহবায়ক ও ঘাটাইল পৌরসভার মেয়র শহিদুজ্জামান খান, যুগ্ম আহবায়ক।

আরও বক্তব্য রাখেন ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান আজাদ, আঃ রহিম, মজিবুর রহমান, জিবিজি কলেজের অধ্যক্ষ শামসুল আলম মনি, আওয়ামী লীগ নেতা তানভীর রহমান, ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মহি উদ্দিন পিপিএম, জেলা পরিষদের সদস্য এডভোকেট শাহানশাহ সিদ্দিকী মিন্টু প্রমূখ।

ভোলা- শনিবার সকাল ১০টায় উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে আনন্দ শোভা যাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। সারাদেশের ন্যায় উপজেলা প্রশাসন বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করে উপজেলার গুরুত্বপুর্ন সড়ক প্রদক্ষিন করে উপজেলা পরিষদ চত্তরে মিলিত হয়।

এসময় র‌্যালিতে অংশ নেন- উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনোয়ার হেসেন, সহকারী কর্মকর্তা (ভুমি) মো. আমীনুল ইসলাম, অফিসার ইন চার্জ মো. এনামুল হক, উপজেলা চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদিন আখন, উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক নুরুল ইসলাম ভিপি, পৌর মেয়র শ্রী বাদাল কৃষ্ণ দেবনাথ, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রভাষক জামাল উদ্দিন মাহাজন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান স্বাপন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আকলিমা ফারুক মিলা, উপজেলা যুবলীগ সাধারন সম্পাদক আল এমরান, সাংগঠনিক সম্পাদক মনজুরুল আলম বিল্পবসহ সকল নেতা কর্মি সমর্থকরা অংশ নেন।

এছাড়াও সকল অফিসের কর্মকর্তা কর্মচারী এবং বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠনের শিক্ষক ছাত্র ছাত্রীসহ সুশীল সামাজের কয়েক হাজার সাধারন জনগন র‌্যালিতে যোগ দেন।

এদিকে সন্ধ্যায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণের চিত্র প্রর্দশনীসহ সাংস্কৃতিক সন্ধ্যাা পরিবেশনের আয়োজন করা হয়েছে বলে উপজেলা প্রশাসনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে।

নবীগঞ্জ– দিবসটি উদযাপনের লক্ষ্যে নবীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বিশাল আনন্দ শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকালে উপজেলা পরিষদের সামন থেকে বিশাল এই বন্যার্ঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে শহর প্রদক্ষিণ করে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাজিনা সারোয়ারের সভাপতিত্বে শোভাযাত্রায় অংশ নেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য মুনিম চৌধুরী বাবু, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট আলমগীর চৌধুরী, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আতাউল গনি ওসমানী, মুক্তযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক আব্দুর রউপ, থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম আতাউর রহমান, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার নূর উদ্দিন বীর (প্রতিক), উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডাঃ জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ইমদাদুর রহমান মুকুল, সাধারন সম্পাদক সাইফুল জাহান চৌধুরী প্রমুখ।

এ দিনটি উদযাপনের লক্ষে সকালে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়, জাতির পিতা ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের জন্য দোয়া করা হয়, পরে উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও মুক্তিযুদ্ধভভিত্তিক চলচ্চিত্র (ওরা ১১ জন) প্রদর্শন করা হয়।

শেষে গত শুক্রবার অনুষ্ঠিত চিত্রাঙ্গন প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের হাতে পুরুস্কার তুনে দেন অথিতিবৃন্দ। শোভাযাত্রায় ১৩ ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে পৃথক ব্যানার নিয়ে এবং পৌরসভার প্যানেল মেয়রের নেতৃত্বে পৌর পরিষদের ব্যানার নিয়ে অংশ নেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি মুনিম চৌধুরী বাবু বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ আর্ন্তজাতিকভাবে স্বীকৃতি লাভ করায় রাজাকার আলবদরা আজ ইর্ষান্বিত হয়ে মুখ চুলকাচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়তে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান।

নন্দীগ্রাম (বগুড়া)- দিনটি উদযাপন উপলক্ষে শনিবার সকাল ১০টায় উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে একটি আনন্দ শোভা যাত্রা বের হয়। উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে আনন্দ শোভাযাত্রাটি বের হয়ে পৌর শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

আনন্দ শোভাযাত্রায় সহকারী কমিশনার (ভুমি) মাশুকাতে রাব্বী, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম মন্ডল, ভাইস চেয়ারম্যান একে আজাদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জান্নাতুল ফেরদৌস লিপি, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভপাতি রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আনিছুর রহমান, কৃষি অফিসার মুশিদুল হক, ওসি আব্দুর রাজ্জাক সহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী গণ অংশগ্রহণ করেন।

এছাড়াও নন্দীগ্রাম মনসুর হোসেন ডিগ্রী কলেজ, পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করে।

কাউখালী (পিরোজপুর): উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে শনিবার সকালে মুজিব চত্বর থেকে বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রাটি গুরুত্বপূর্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বালক বিদ্যালয় হলরুমে স্বাধীনতা মঞ্চে রচনা, সাধারণ জ্ঞান প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনী করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইসরাত জাহান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ কামরুজ্জামান মিঠু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা ইসমিন পপি, জেলা পরিষদের সদস্য শাহিন রেবেকা চৈতী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এবিএম শাহজাহান, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদাক মোঃ মনিরুজ্জামান পল্টন, সাংগঠনিক সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মাহমুদ খান খোকন, কাউখালী সদর ইউপি চেয়ারম্যান আমিনুর রশীদ মিল্টন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ মৃদুল আহম্মেদ সুমন সহ সরকারি- বেসরকারী বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।

মেহেরপুর- সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসক চত্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য প্রদান এর মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়। জেলা প্রশাসন, সংসদ সদস্য, জেলা দায়রা জজ, পুলিশ সুপার, জেলা আওয়ামীলীগ, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডসহ সকল স্তরের মানুষ পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

এরপর মেহেরপুর ১ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক ফরহাদ হোসেনের নেতৃত্বে জেলা প্রশাসক চত্বর হতে এক বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা বের হয়ে প্রধান সড়ক হয়ে ড.শহীদ সামসুজ্জোহা পার্কে গিয়ে শেষ হয়।

শোভা যাত্রায় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক পরিমল সিংহ, জেলা ও দায়রা জজ গাজিউর রহমান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্জ¦ গোলাম রসুল, পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান, পৌর মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটন, সাবেক সংসদ সদস্য জয়নাল আবেদিন, সাবেক জেলা পরিষদ প্রশাসক এ্যাড. মিয়াজান আলী সহ জেলা আওয়ামী লীগ, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ছাত্র-ছাত্রী, সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারি শোভাযাত্রায় অংশ গ্রহন করেন।

পরে সেখানে মফিজুর রহমান মুক্ত মঞ্চে জেলা প্রসাশক পরিমল সিংহের সভাপতিত্বে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির উপর আলোচনা শুরু হয়। আলোচনা শেষে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর)– ফুলবাড়ী উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে সকাল ১০টায় উপজেলা পরিষদ চত্ত্বর থেকে এক বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভা যাত্রা বের হয়ে পৌর শহর প্রদক্ষিণ করে।

পরে উপজেলা চত্ত্বরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আব্দুস সালাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং বঙ্গবন্ধু কলেজে অধ্যক্ষ মাসুদুর রহমানের সঞ্চালনায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হায়দার আলী শাহ্, সাধারন সম্পদক মুশফিকুর রহামান বাবুল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ফুলবাড়ী সার্কেল) মো. রফিকুল ইসলাম, ফুলবাড়ী আদর্শ ডিগ্রি মহাবিদ্যালয়ে উপাধক্ষ্য শাহ মো. আব্দুল কুদ্দুস, ফুলবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. নাসিম হাবিব, ফুলবাড়ী মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার এছার উদ্দিন মন্ডল, জিএম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোজাম্মেল হক প্রমূখ।

এ সময় বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সরকারী কর্মকর্তা কর্মচারী, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক শিক্ষিকা, ছাত্র-ছাত্রী,ও বিভিন্ন শ্রেনীপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন ।

আলোচনা সভা শেষে উপজেলা শিল্পকলা একাডেমীর পরিবেশনায় এক মনোজ্ঞা সাংস্কৃতি অনুষ্ঠান ও ওরা এগার জন চরচিত্র পরিদর্শন করা হয়।

বাঞ্ছারামপুর (ব্রাহ্মণবাড়ীয়া) সকাল ১০ টায় বাঞ্ছারামপুর উপজেলার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার থেকে বাঞ্ছারামপুর জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে র‌্যালিটি বের হয়ে শহর প্রদক্ষিণ শেষে জেলা তাজুল ইসলাম অডিটোরিয়াম কার্যালয়ের সামনে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি স্তম্ভেও সামনে শেষ হয়।

এ সময় প্রধান অতিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, এম পি ও সাবেক মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক স্থায়ি কমিটির সভাপতি ক্যাপ্টেন এবি তাজুল ইসলাম। আরো উপস্থিতি ছিলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম, উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম নুরু, বাঞ্ছারামপুর পৌরসভার মেয়র  মো.খলিলুর রহমান টিপু মোল্ল, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি সায়েদুল ইসলাম ভুইয়া বকুল।

র‌্যালিতে উপজেলার বিভিন্ন সংগঠনসহ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কাদির মিয়া, প্রেসক্লাবের সভাপতি এম এ আওয়ালু। এছাড়া উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারী, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক, আইনজীবী, বিভিন্ন সাহিত্য, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শরীয়তপুর: সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে থেকে ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মাহবুবা আক্তারের নেতৃত্বে এবং জেলা জর্জ কোর্টের সামনে থেকে চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো: এহসানুল হক এর নেতৃত্বে র‌্যালী বের করা হয়।

র‌্যালীতে সরকারী বভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারী, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রী, রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া জেলার ভেদরগঞ্জ,ডামুড্যা, গোসাইরহাট, নড়িয়া ও জাজিরা উপজেলাতেও একই কর্মসুচি পালিত হয়েছে। ভেদরগঞ্জ উপজেলাতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাব্বির হোসেনের নেতৃত্বে বিশাল এক আনন্দ র‌্যালী বের করা হয়। মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের কয়েক শতাধিক মুক্তিযোদ্ধা সন্তান একটি বর্নাঢ্য র‌্যালী বের করে উপজেলার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

রবি