লক্ষ্মীপুর রামগঞ্জে পুলিশ কর্মকর্তার প্রত্যাহারের দাবিতে ঝাড়ু মিছিল

৭:৫৬ অপরাহ্ন | রবিবার, নভেম্বর ২৬, ২০১৭ দেশের খবর

মু.ওয়াছীঊদ্দিন, লক্ষ্মীপুর:   লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে পৌরসভার গার্ভেজ ট্রাক চালক খোরশেদ আলমকে মারধরের ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ঝাড়ু   মিছিল করেছে বিক্ষুব্ধরা। আজ বিকালে পৌরসভার সামনে ঝাড়ু হাতে মিছিল করেন তারা।

একই সঙ্গে অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তা রামগঞ্জ থানার এসআই ফারুককে প্রত্যাহার করার দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য পৌরসভার সকল সেবা কার্যক্রম বন্ধ রেখেছেন রামগঞ্জ পৌরসভা সার্ভিস এসোসিয়েশন। এতে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন পৌরবাসী।

উল্লেখ্য, শনিবার দুপুরে পৌর কর্মচারি খোরশেদ ময়লা অপসারণ করে ট্রাক নিয়ে কার্যালয়ে ফিরছিলেন। এসময় খাদ্যগুদাম এলাকায় পৌঁছালে এসআই ফারুকের মোটরসাইকেল সাইড না দিয়ে গাড়ি চালিয়ে চলে আসেন খোরশেদ। এতে এসআই ফারুক ক্ষিপ্ত হয়ে ট্রাকটি থামিয়ে প্রকাশ্য বাজারের উপর তাকে এলোপাতাড়ি মারধর করে। এসময় তার মুঠোফোনটি ভেঙে ফেলা হয়। যা পৌরসভার সিসি টিভি ক্যামরায় স্পষ্টভাবে দেখা যায়। বর্তমানে খোরশেদ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চিকিৎসাধীন।

 

              লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে গৃহবধুর ঝুলন্ত লাশ উদ্বার

লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে শারমিন আক্তার রাইজু (২২) নামের এক সন্তানের জননীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার বিকালে পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড’র দেনায়েতপুর গ্রামের হাজী বাড়ীর পিতার ঘর থেকে নিজ কক্ষের আড়ার সাথে গলায় ওড়না পেঁচানো মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

নিহত গৃহবধু ওই গ্রামের কাতার প্রবাসি জহির হোসেনের মেয়ে এবং নোয়াখালির বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমহনী গ্রামের ঢাকার ব্যাবসায়ী রাসেল হোসেনের ২য় স্ত্রী। এ ঘটনায় রোববার দুপুরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে ও থানায় ইউডি মামলা হয়েছে।

রায়পুর থানার এসআই মোতাহের হোসেন জানান-শনিবার রাতে পারিবারিক কলহের জের ধরে এক পুত্র সন্তানের জননী গৃহবধু রাইজু তার মা’র সাথে ঝগড়া করে নীজের কক্ষে অবস্থান করে। রোববার সকালে পরিবারের লোকজন ঘরের আড়ার সাথে ওড়না পেঁচানো অবস্থায় রাইজুর ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয় । পরে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।