সংবাদ শিরোনাম

বাংলাদেশকে তিস্তার পানি না দেয়ার সাফ ঘোষণা মমতারশ্বশুরবাড়ি যাওয়ার আগে কাঁদতে কাঁদতেই মারাই গেলেন কনে!এবার ‘টোকাই’ হয়ে আসছেন হিরো আলমহাসপাতালের ওষুধ পাচারের ছবি তোলায় ১০ সংবাদকর্মী তালাবদ্ধবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ স্বাধীনতার প্রকৃত ঘোষণা: প্রধানমন্ত্রীনির্মাণকাজ শেষের আগেই ‘মডেল মসজিদের’ বিভিন্ন স্থানে ফাটলআহসানউল্লাহ মাস্টারসহ ১০ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান পাচ্ছেন স্বাধীনতা পুরস্কারঐতিহাসিক ৭ মার্চের সুবর্ণ জয়ন্তী: টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে মানুষের ঢলচট্টগ্রাম কারাগারে হাজতি নিখোঁজ, জেলার-ডেপুটি জেলার প্রত্যাহারদেবীগঞ্জে ট্রাক্টরের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

  • আজ ২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘রাষ্ট্রপতির কাছে বিচারকদের আচরণবিধির খসড়া যাচ্ছে আজই’

৩:০৬ অপরাহ্ন | বুধবার, নভেম্বর ২৯, ২০১৭ Breaking News, জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর: নিম্ন আদালতের বিচারকদের আচরণবিধি সংক্রান্ত গেজেটের খসড়া আজ বুধবারই রাষ্ট্রপতি কাছে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

আজ বুধবার দুপুরে সচিবালয়ে নিজ কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে আইনমন্ত্রী এ কথা বলেন।

আনিসুল হক বলেন, উচ্চ আদালতের তৈরি করা নিম্ন আদালতের বিচারকদের আচরণবিধি সংক্রান্ত গেজেটের খসড়া আমরা হাতে পেয়েছি। আশা করছি, আজকের মধ্যেই সেটি রাষ্ট্রপতির কাছে যাবে। রাষ্ট্রপতি অনুমোদন দিলেই তা প্রজ্ঞাপন আকারে জারি করা হবে।

তিনি বলেন, এই আচরণবিধি নিয়ে উচ্চ আদালতের সঙ্গে অনেক আলাপ-আলোচনা হয়েছে। তারপর উচ্চ আদালত এই খসড়া তৈরি করে দিয়েছেন। এতে নিম্ন আদালতের বিচারকদের সবকিছুই থাকছে।

বিচারক সংক্রান্ত আচরণবিধিতে কী কী থাকছে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে আইনমন্ত্রী বলেন, প্রজ্ঞাপন প্রকাশিত হলেই তা জানতে পারবেন।

এর আগে মন্ত্রী তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন (আইসিটি) নিয়ে একটি সভায় যোগ দেন। সেখানে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ হোসেন পলকসহ সরকারের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক থেকে বেরিয়ে এসে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক সাংবাদিকদের বলেন, এই বৈঠকেই চূড়ান্ত হবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা থাকবে কি থাকবে না। আজকের বৈঠকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারা এবং ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন নিয়ে আলোচনা হবে। ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন এখন চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী আরো বলেন, ৫৭ ধারা রাখা হলেও এমনভাবে থাকবে যেন সেটি বাকস্বাধীনতায় কোনো ধরনের ব্যাঘাত তৈরি না করে।