• আজ ১৬ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ঝিনাইদহে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জন বিষয়ক কর্মশালা

৮:১০ অপরাহ্ন | বুধবার, নভেম্বর ২৯, ২০১৭ Breaking News, খুলনা, দেশের খবর

আরাফাতুজ্জামান, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: ঝিনাইদহে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জনে ব্যক্তিখাতে বিনিয়োগ পরিকল্পনা এবং উদ্যোক্ত সৃষ্টি ও দক্ষতা উন্নয়ন ব্ষিয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দিনব্যাপী জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। ঝিনাইদহের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আছাদুজ্জামান এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক জাকির হোসেন।

এ সময় স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক আবু ইউসুফ মো: রেজাউর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) খোদেজা খাতুন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) ডা: কানিজ হোসেন জাহান, সিভিল সার্জন ডা: রাশেদা সুলতানা। অনুষ্ঠানে চিকিৎসক, শিক্ষক, শিক্ষার্থী সাংবাদিক, সুশীল সমাজ, সরকারি ও বেসরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় বক্তারা টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যক্তিখাতে বিনিয়োগ পরিকল্পনা এবং উদ্যোক্ত সৃষ্টি ও দক্ষতা উন্নয়ন নিয়ে আলোচনা করেন। সেই সাথে অংশগ্রহণকারীরা টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জনে ১৭ টি সুচক বাস্তবায়নের সমস্যা, সমাধান ও ভবিষ্যত করণীয় নিয়ে আলোচনা করেন।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের ৭০ তম অধিবেশনে ২০৩০ সালের মধ্যে ‘টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট’ অর্জনে ১৭ টি সূচক নির্ধারণ করা হয়।

ঝিনাইদহে ২টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে জরিমানা

ঝিনাইদহে খাবারে রাসায়নিক রং ব্যবহার ও ফার্মেসিতে মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ রাখার অপরাধে দুটি দোকানে ১৪ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

বুধবার দুপুরে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সুচন্দন মন্ডল এ অভিযান চালান।

জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার দুপুরে সদর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। এসময় রাসায়নিক রং মেশানোর অপরাধে গোয়ালপাড়া বাজারের মায়ের দোয়া বেকারিতে ৮ হাজার টাকা ও মধুপুর বাজারের জামান ফার্মেসিতে মেয়াদ উত্তীর্ণ ঔষধ ও ইনজেকশন রাখার অপরাধে ৬ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অভিযানে জেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর আবুল হাশেম, সদর উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর নারায়ণ চন্দ্র বিশ্বাস উপস্থিত ছিলেন।

 

ঝিনাইদহে ভূয়া পরীক্ষার্থীর ১ বছরের কারাদন্ড

ঝিনাইদহে অনার্স ২য় বর্ষের ইংরেজি পরীক্ষায় প্রক্সি দেওয়ার অপরাধে নাজমুস সাবিক নামে এক ভূয়া পরীক্ষার্থীকে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। বুধবার বিকেলে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুপ্রভাত চাকমা এ দন্ডাদেশ প্রদাণ করেন। দন্ডিত নাজমুস সাকিব সদর উপজেলার হরিশংকরপুর গ্রামের রেজাউল ইসলামের ছেলে।

আদালত সুত্রে জানা যায়, বুধবার সারাদেশের ন্যায় ঝিনাইদহ সরকারি কেসি কলেজে অনুষ্ঠিত হয় অনার্স ২য় বর্ষের ইংরেজি পরীক্ষা। পরীক্ষায় কলেজের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের শামীম রেজা নামের এক শিক্ষার্থীর পরিবর্তে নাজমুস সাবিক নামে এক যুবক পরীক্ষা দিচ্ছিল। পরে তাকে আটক করে আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালতের বিচারক তাকে পাবলিক পরীক্ষাসমুহ (অপরাধ আইন) ১৯৮০ এর ৩ ধারা মোতাবেক ১ বছরের কারাদন্ডাদেশ প্রদাণ করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতে ঝিনাইদহ সদর থানার এস আই কবীর ও এস আই প্রবীর সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে উপস্থিত ছিলেন।