রাহুল গান্ধী হিন্দু নন?

৪:৩৫ অপরাহ্ন | বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ৩০, ২০১৭ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- কংগ্রেসের সহ-সভাপতি রাহুল গান্ধী হিন্দু নাকি অন্য কোনো ধর্মের অনুসারী তা নিয়ে ভারতের গুজরাটে ভোটের আগে জমজমাট চর্চা শুরু হয়েছে। সোমনাথ মন্দির দর্শনে গিয়েছিলেন রাহুল। যা নিয়ে ফের একবার কংগ্রেস-বিজেপি সম্মুখ সমরে নেমে পড়েছে।

গতকাল বুধবার একটি রেজিস্টারের পাতায় রাহুলের নাম লেখা নিয়ে তুলকালাম হয়। বিজেপি দাবি রাহুল অ-হিন্দু হিসাবে নিজেকে পরিচয় দিয়ে সই করেছেন।

এদিকে কংগ্রেস সেই অভিযোগ সরাসরি নস্যাৎ করে দেয়। পাশাপাশি রাহুলের হিন্দু হওয়ার প্রমাণ হিসাবে তিনটি ছবিও প্রকাশ করে। যা প্রমাণ করবে রাহুল আসলে হিন্দু। এই ঘটনায় এবার মুখ খুলেছে সোমনাথ মন্দির কর্তৃপক্ষ।

মন্দির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আমাদের রীতি অনুযায়ী অ-হিন্দুদের নাম রেজিস্টারে লিখতে হয়। রাহুল গান্ধীর নাম তার মিডিয়া কো-অর্ডিনেটর অ-হিন্দু রেজিস্টারে নথিভুক্ত করিয়েছে। এই ঘটনায় মন্দির ট্রাস্টের কোনো ভূমিকা নেই বলেও সোমনাথ মন্দির কর্তৃপক্ষের তরফে পিকে লেহরি দাবি করেছেন।

এমনকি দর্শণার্থীদের রেজিস্টারে এই মন্দিরকে অনুপ্রেরণার স্থান বলেও উল্লেখ করেছেন। এর আগে বিজেপি রাহুলকে নিয়ে মিথ্যাচার করছে বলে অভিযোগ করে কংগ্রেস। শুধু তাই নয়, রাহুল শিবভক্ত ব্রাহ্মণ বলেও দাবি করা হয়। তবে সোমনাথ মন্দিরে তার মিডিয়া কো-অর্ডিনেটর যে কাণ্ড করেছেন তাতে ফের বিতর্ক শুরু হয়েছে।

বিজেপি’র তথ্যপ্রযুক্তি সেলের প্রধান অমিত মালব্য টুইটারে ভিজিটার্স বুকের একটি পাতা বুধবার পোস্ট করেন। অমিতের দাবি, ওই পাতাটি সোমনাথ মন্দিরের ভিজিটার্স রেজিস্টারের পাতা। বুধবার রাহুল গান্ধী সোমনাথ মন্দিরে গিয়েছিলেন। সে সময় নাকি রাহুল ও কংগ্রেস সাংসদ আহমেদ প্যাটেল এতে সই করেন।

পরে কংগ্রেসের পক্ষে আর একটি ভিজিটার্স বুকের পাতা প্রকাশ করা হয় যেখানে সেই অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করা হয়।

সময়ের কণ্ঠস্বর/রবি