আনিসুল হকের মরদেহ ঢাকায়

১:৩৩ অপরাহ্ন | শনিবার, ডিসেম্বর ২, ২০১৭ Breaking News, ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর– ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আনিসুল হকের মরদেহ আজ বেলা পৌনে একটায় ঢাকায় এসেছে। তাঁর মরদেহ বহনকারী বাংলাদেশ বিমানের বিজি ০০২ নম্বর ফ্লাইটটি হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

বিমানবন্দরের আনুষ্ঠানিকতা শেষে তাঁর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হবে বনানীর বাসায়। মরদেহ গ্রহণের জন্য বিমানবন্দরে উপস্থিত আছেন মেয়রের ছোটভাই সেনাপ্রধান জেনারেল আবু বেলাল মো. শফিউল হক। আরও উপস্থিত আছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরসহ বিশিষ্টজনেরা।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মেয়রের মরদেহের সঙ্গে দেশে এসেছেন তাঁর স্ত্রী রুবানা হক, ছেলে নাভিদুল হক, দুই মেয়ে ওয়ামিক উমায়রা ও তানিশা ফারিয়াম্যান হক।

বিমানবন্দর থেকে আনিসুল হকের মরদেহ বনানীর ২৩ নম্বর সড়কে অবস্থিত তাঁর বাসভবনে আনা হবে। সেখান থেকে বিকালে আর্মি স্টেডিয়ামে আনার পর বাদ আসর জানাজা হবে। এরপর আনিসুল হকের মরদেহ বনানী কবরস্থানে দাফন করা হবে।

গত ২৯ জুলাই নাতির জন্ম উপলক্ষে ব্যক্তিগত সফরে সপরিবারে যুক্তরাজ্য যান আনিসুল হক। সেখানে অসুস্থ হয়ে পড়লে ১৩ আগস্ট তাকে লন্ডনের ন্যাশনাল নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর তার মস্তিষ্কে প্রদাহজনিত রোগ ‘সেরিব্রাল ভাস্কুলাইটিস’ শনাক্ত করেন চিকিৎসকরা।

এরপর তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছিল। ধীরে ধীরে অবস্থার উন্নতি ঘটলে তাকে গত ৩১ অক্টোবর আইসিইউ থেকে রিহ্যাবিলিটেশন সেন্টারে স্থানান্তর করা হয়। গত সোমবার অবস্থার অবনতি হলে তাকে রিহ্যাবিলিটেশন সেন্টার থেকে পুনরায় আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। প্রায় সাড়ে তিন মাস চিকিৎসাধীন থাকার পর গত বৃহস্পতিবার মারা যান তিনি।

রবি

কারওয়ান বাজারে ভয়াবহ আগুন

⊡ শনিবার, ফেব্রুয়ারী ২৭, ২০২১

৩০ মার্চ খুলছে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

⊡ শনিবার, ফেব্রুয়ারী ২৭, ২০২১

আমি অবশ্যই টিকা নেব: প্রধানমন্ত্রী

⊡ শনিবার, ফেব্রুয়ারী ২৭, ২০২১

নাসির-তামিমার বিয়ে নিয়ে মানববন্ধন!

⊡ শনিবার, ফেব্রুয়ারী ২৭, ২০২১