ঝালকাঠিতে স্ত্রীকে শ্বাস রোধে হত্যার অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার, পুলিশের কাছে স্ত্রীকে হত্যার কথা স্বীকার

৬:০১ অপরাহ্ন | সোমবার, ডিসেম্বর ৪, ২০১৭ Breaking News, আলোচিত, দেশের খবর, বরিশাল, স্পট লাইট

অমিত বনিক অপু, ঝালকাঠি প্রতিনিধি: ঝালকাঠি শহরের কাঠপট্টি সড়কে সুমাইয়া ফরাজী গর্না (২১) নামের এক গৃহবধুকে শ্বাস রোধে হত্যার অভিযোগে তার স্বামী হিমু আকনকে (২৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (৪ ডিসেম্বর) দুপুরে তাকে বরিশাল হাসপাতাল থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর আগের নিহত সুমাইয়া ফরাজী গর্নার বাবা আসলাম ফরাজী বাদি হয়ে হত্যার অভিযোগ এনে হিমু আকনসহ চার জনের বিরুদ্ধে ঝালকাঠি সদর থানায় মামলা করে।

সুমাইয়া ফরাজী গর্না ঝালকাঠি সরকারি মহিলা কলেজের ডিগ্রী দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী। মামলায় অন্য অভিযুক্তরা হলো- হিমু আকনের বাবা মিল্টন আকন , সৎ মা আয়েশা বেগম ও মিলের শ্রমিক মাহফুজ হোসেন। ঘটনার পর থেকে এরা পলাতক রয়েছে। নিহতের মৃতদেহ ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এদিকে পুলিশের কাছে স্ত্রীকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে স্বামী হিমু আকন। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানিয়েছে, প্রায় তিন বছর আগে দুই পরিবারের সম্মতি ছাড়াই শহরের কাঠপট্টি সড়কের মিল্টন আকনের ছেলে হিমু আকন একই এলাকার আসলাম ফরাজীর মেয়ে সুমাইয়া ফরাজী গর্নাকে বিয়ে করে। বিয়ের পর থেকে ছেলের পরিবার এই সম্পর্ক মানছিল না। এ নিয়ে পারিবারিক কলহ লেগে থাকত। গত বরিবার দুপুরে হিমু আকনের বাবা মিল্টন আকনের মুড়ির মিলের উপরের একটি কক্ষে ডেকে নেয় সুমাইয়া ফরাজী গর্নাকে। পরে দরজা বন্ধ করে ঝগড়া করে ওই দম্পতি। এক পর্যায়ে মুড়ি মিলের কর্মচারী সাইদুল হোসেন এর সহযোগীতায় সুমাইয়া ফরাজী গর্নার গলায় স্যালাইনের পাইপ পেচিয়ে ফাস দিয়ে শ্বাস রোধে তাকে হত্যা করে। পরে ঘাতক স্বামী বিষ পানের নাটক করে বরিশালের শেবাচিমে হাসপাতালে ভর্তি হয়। নিহত গৃহবধু সুমাইয়া ফরাজী গর্নার বাবা আসলাম ফরাজী মেয়ে হত্যার বিচার চেয়েছেন।

ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডাক্তার শিউলি পারভিন জানিয়েছে, সুমাইয়াকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। তবে প্রাথমিক অবস্থায় তার মৃত্যুর কারণ বোঝা যায়নি। অপরদিকে হিমুর মুখে বিষাক্ত পদার্থ দেখা গেছে।

ঝালকাঠি সদর থানার ওসি তাজুল ইসলাম জানান, ‘সুমাইয়া ফরাজী গর্নাকে হত্যার অভিযোগে তার স্বামী হিমু আকনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য অভিযুক্তরা পলাকত রয়েছে। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 

ঝালকাঠি হকার্স ইউনিয়নের সদস্য সচিব জাহিদ মিয়া আর নেই

ঝালকাঠি সংবাদপত্র হকার্স ইউনিয়নের সদস্য সচিব জাহিদ মিয়া (৬৫) আর নেই। তিনি রাজাপুর থানার পিংড়ি গ্রামের নিজ বাড়িতে সোমবার সকাল ৬ টার দিকে ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃতুকালে তিনি স্ত্রী ও চার ছেলেসহ অনেক গুনগ্রাহি রেখে গেছেন। আছরবাদ জানাযা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়েছে।

জাহিদ মিয়া’র মৃত্যুতে আরাফ নিউজ এজেন্সীর ম্যানেজার আকতারুজ্জামান বাচ্চু, সংবাদপত্র হকার্স ইউনিয়নের সভাপতি সালাউদ্দিন ও সাধারন সম্পাদক আলমগীর হোসেন শোক প্রকাশ করেছেন।