• আজ ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

গাইবান্ধায় ছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় লম্পট শিক্ষক কারাগারে!


মোঃ ফরহাদ আকন্দ, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার চন্ডিপুর এটিএম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া লম্পট শিক্ষক সাজ্জাদুল করীম টিপুকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

গতকাল সন্ধ্যায় সুন্দরগঞ্জ থানা পুলিশ লম্পট শিক্ষক সাজ্জাদুল করিম টিপুকে গাইবান্ধা অতিরিক্ত চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (দ্রুত বিচার) আদালতে হাজির করে। আদলতের বিচারক (সুন্দরগঞ্জ) মইনুল হাসান ইউসুফ ওই লম্পট শিক্ষককে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এর আগে রবিবার (৩ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলা শহর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার সাজ্জাদুল করীম টিপু গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার চন্ডিপুর এটিএম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের আইটি শিক্ষক। সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিয়ার রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, মেয়ের বাবা বাদী হয়ে রবিবার রাত পৌনে ৯টায় থানায় ধর্ষণ মামলা (মামলা নং-০৪) করেছেন।

ছাত্রীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ফেব্র“য়ারি মাসের মাঝামাঝি সময়ে সাজ্জাদুল করীম টিপু ওই ছাত্রীকে সাজেশন দেওয়ার কথা বলে ছুটির পর বিদ্যালয়ে থাকতে বলে। পরে তাকে বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে এবং ভিডিও ধারণ করে। পরে ধর্ষণের ভিডিও ফাঁস করার ভয় দেখিয়ে তাকে আবারও ধর্ষণ করা হয়।

ওই ছাত্রীর বাবা ও মা অভিযোগ করে বলেন, এ বিষয়ে গত ২৯ নভেম্বর ছাত্রীর বাবা প্রধান শিক্ষকের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। তবে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে কোন প্রকার ব্যবস্থা না নিয়ে আমার মেয়েকে স্কুল থেকে ছাড়পত্র দিয়ে বের করে দেয়। পরে বাধ্য হয়ে স্কুল থেকে ছাড়পত্র নিয়ে এলাকা ছেড়ে সুন্দরগঞ্জে এক আত্মীয়র বাসায় আশ্রয় নেয় আমাদের মেয়ে।

এলাকাবাসীর জানান, ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর থেকেই ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক পালাতক রয়েছে। তারা অভিযুক্ত ওই লম্পট শিক্ষকের উপযুক্ত শাস্তি ও ফাসির চায়।

◷ ৬:৫৭ অপরাহ্ন ৷ মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৫, ২০১৭ অপরাধ, দেশের খবর