সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

‘নতুন বছর থেকে খাতওয়ারি বড় বড় দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা’

১:০৪ অপরাহ্ন | শনিবার, ডিসেম্বর ৯, ২০১৭ Breaking News, জাতীয়, স্পট লাইট

সময়ের কণ্ঠস্বর- দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, নতুন বছর থেকে খাতওয়ারি বড় বড় দুর্নীতিবাজদের তালিকা করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এজন্য কমিশন নিজস্ব গবেষণা ও গোয়েন্দা তথ্যকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছে। শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে দুর্নীতিবিরোধী মানববন্ধনে তিনি একথা বলেন। চেয়ারম্যান ও কমিশনারদের নেতৃত্বে দুদকের সকল স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারী, গার্ল গাইডস, বয়েজ স্কাউট, আনসার ও বিএনসিসির সদস্যরা এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন।

বেসিক ব্যাংকের ঋণ জালিয়াতি প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ‘তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত এ বিষয়ে কিছু বলতে চাই না। তদন্তকালে যার বিরুদ্ধে প্রমাণ পাওয়া যাবে, তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এক্ষেত্রে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না।’

তিনি বলেন, ‘জনগণের অর্থ লোপাটের দিন শেষ। ব্যাংকের অবশ্যই আইন-বিধি অনুযায়ী ঋণ দিতে হবে। জনগণের অর্থ নিয়ে ছিনিমিনি করতে দেওয়া হবে না।’

অপর এক প্রশ্নের জবাবে ইকবাল মাহমুদ বলেন, ‘দুর্নীতিবাজদের স্ত্রীর নামে সম্পদ রাখা একটা সামাজিক সমস্যায় পরিণত হয়েছে। এজন্য অনেক সময়ই দুর্নীতিবাজদের স্ত্রীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হয়।’

তিনি বলেন, ‘মনে হয় অধিকাংশ সরকারি কর্মকর্তাদের শ্বশুর বাড়ির লোকেরা ধনী। তারা স্ত্রীদের নামে সম্পদ থাকার কথা বলছেন। এর বড় কারণ আমাদের দেশের মা-বোনরা সচেতন নয়। এজন্য মা-বোনদের সচেতন করার চেষ্টা করছি। এ বিষয়টি অধিক গুরুত্ব দিয়ে চিন্তা-ভাবনা করছি।’

দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ‘দুর্নীতি শুধু বাংলাদেশের একক কোনো সমস্যা নয়, এটি বৈশ্বিক সমস্যা। তাই জাতিসংঘ আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী কনভেনশন গ্রহণ করেছে। পাশাপাশি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে দুর্নীতিকে অন্যতম চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এ বছর সরকারিভাবে ৯ ডিসেম্বরকে আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস হিসেবে উদযাপন করা হচ্ছে। আমরা মনে করি, দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকার ইতিবাচক পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। এখনই বর্তমান প্রজন্ম ও ভবিষ্যত প্রজন্মকে দুর্নীতির রাহুগ্রাস হতে রক্ষা করতে হবে।’

ইকবাল মাহমুদ বলেন, ‘আমাদের সকল স্তরের নাগরিক ছাত্র, শিক্ষক, রাজনীতি, সুশীল সমাজসহ ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলকে দুর্নীতির বিরুদ্ধে একতাবদ্ধ হতে হবে। তা না হলে দুর্নীতি নির্মূল করা যাবে না। শুধু দুদক, শুধু মিডিয়া কিংবা সরকার দুর্নীতি দূর করতে পারবে না।’

‘আসুন, দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে একতাবদ্ধ হই’ প্রতিপাদ্যে শনিবার জাতিসংঘ ঘোষিত আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস পালিত হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে সকালে দুদকের নেতৃত্বে রাজধানীতে একটি শোভাযাত্রা বের হয়।