সংবাদ শিরোনাম
সেন্টমাটিনে ভাসমান ট্রলার থেকে মালয়েশিয়াগামী ১২২ রোহিঙ্গা উদ্ধার | রাঙ্গা সম্পর্কে কটূক্তি করার প্রতিবাদে রংপুরে ফিরোজ রশীদের কুশপুত্তলিকা দাহ | ময়মনসিংহে অনলাইন জিডির উদ্বোধন করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী | ইবির ভর্তি পরীক্ষাঃ ‘এ’ ইউনিটে জিরো থেকে হিরো এক শিক্ষার্থী | মন্ত্রণালয়ে পাঠানো চিঠির দৃশ্যমান পদক্ষেপ নেয়নি বাকৃবি প্রশাসন | ঠাকুরগাঁওয়ে বাল্যবিবাহের চেষ্টা, কাজী ও বরকে কারাদণ্ড | টাঙ্গাইলে আবারো কালীমন্দিরে ভাংচুর | ৫ কেজি চালের দামে ১ কেজি পেঁয়াজ! | ‘সিগন্যাল ব্যবস্থাপনায় ত্রুটির কারণে উল্লাপাড়ায় দুর্ঘটনা’- রেল সচিব | ‘জঙ্গিদের কাছে কোরআন-হাদিসের দাওয়াত পৌঁছে দিতে হবে’- গণপূর্ত মন্ত্রী |
  • আজ ৩০শে কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

এও সম্ভব! উকুন হওয়ার প্রবণতা মোবাইল থেকেই!

৪:১২ অপরাহ্ণ | বুধবার, জুলাই ১১, ২০১৮ তথ্য জাদুঘর, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক- পৃথিবীতে এই মুহূর্তে সব থেকে বেশি প্রয়োজনীয় যোগাযোগ মাধ্যম যন্ত্র মোবাইল ফোন। যোগাযোগ হোক বা নিদেন ছবি তোলা ফোন ছাড়া এ যুগে চলার কথা ভাবতে পারেন না প্রায় কেউই।

অফিসের জরুরি মেল কিংবা বাড়িতে বসেই পছন্দের জিনিস কেনাকাটা, সবই হয়ে যায় মাত্র কয়েক ক্লিকে। কিন্তু জানেন কি, অতিরিক্ত এই মোবাইল ব্যবহার থেকেই ছড়ায় নানা ভয়াল অসুখ, যা অতিষ্ঠ করে তুলতে পারে আপনার জীবন।

আসুন দেখে সে সব কী কী-

১। ফোনের ব্যাক কভার কোন উপাদানের? ক’দিন খুলে পরিষ্কার করেন? চর্মরোগ বিশেষজ্ঞ সঞ্জয় ঘোষের মতে, সস্তা প্লাস্টিক কভার থেকে অনেক সময়ই অ্যালার্জি ছড়াতে পারে। এ ছাড়া ব্যাককভার খুলে নিয়মিত পরিষ্কার না করলে চামড়ায় নানা সংক্রমণও ঘটতেই পারে। সুতরাং সাবধান হোন আজই।

২। সারাদিন ফোনে খুটখুট কিন্তু ক্ষতি করছে আঙুলেরও। স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞ কল্লোল কুমার দে -র মতে, মাত্রাতিরিক্ত মোবাইল ব্যবহার আঙুলের স্নায়ুর উপর চাপ ফেলে, পেশীক্লান্তি ঘটায়। সারা দিন অনলাইন গেমস বা টেক্সটিংয়ে ব্যস্ত থাকা আঙুলকে মাঝে মাঝে আরাম না দিলে আঙুল অবশ হয়ে যেতে পারে এক সময়। বাড়াবাড়ি হলে অস্ত্রপচারও করতে হতে পারে।

৩। ঘন ঘন ফোনের স্ক্রিনে হাত দেন আর তার পর সেই হাতই চালান করে দেন মুখে? তা হলে আজই সচেতন হোন। এমনিতেই হাত না ধুয়ে খাবার খাওয়া অস্বাস্থ্যকর, তার উপর যদি ফোনের স্ক্রিনে জমে থাকা ধুলো আর অসংখ্য জীবাণু সংক্রামিত হাত যদি মুখে দেন, তা হলে পেটের অসুখের সম্ভাবনা বেড়ে যায় অনেক।

৪। সারাক্ষণ ফোনের দিকে তাকিয়ে দিন গেলে চোখের সর্বনাশ তো হবেই, সঙ্গে বাড়বে মাইগ্রেনের সমস্যাও। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ সুবর্ণ গোস্বামীর মতে, মস্তিষ্কের স্নায়ু কোষকে সারাক্ষণ উত্তেজিত করে মোবাইলের ক্ষতিকারক রশ্মি। পেশীক্লান্তির সঙ্গে যা সেন্ট্রাল নার্ভাস সিস্টেমের কাজকে ব্যাহত করে ও মাথা যন্ত্রণার প্রকোপ বাড়ায়

৫। নিজস্বীর সময় সঙ্গীদের সঙ্গে খুব ঘন হয়ে দাঁড়ান? তা হলে সাবধান! হতে পারে উকুন! সম্প্রতি সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমের সমীক্ষা অনুযায়ী, উকুন হওয়ার প্রবণতা বাড়ে মোবাইল থেকেই। নিজস্বী তোলার সময় ঘেঁষে দাঁড়ানো, সঙ্গে মোবাইলের ফ্ল্যাশ— দুই-ই উত্তেজিত করে উকুনদের। তারা এক মাথা থেকে অন্য মাথায় ছড়িয়ে পড়ার সুযোগ পায়।

৬। দিনের অনেকটা সময় মোবাইলের দিলে অনিদ্রার প্রকোপে পড়বেন সহজেই। চিকিৎসাবিজ্ঞান বলছে, মোবাইলের উজ্জ্বল আলো আর রশ্মি মস্তিষ্ককে উত্তেজিত করে। বিরাম পায় না সেন্ট্রাল নার্ভাস সিস্টেম। ফলে স্নায়বিক উত্তেজনায় ঘুমের পরিমাণ কমে।

তথ্য সূত্র- আনন্দবাজার

Loading...