গৃহবধূর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় ছাত্রলীগ নেতা আটক! অত:পর

৬:৫৪ অপরাহ্ন | শনিবার, জুলাই ২১, ২০১৮ অপরাধ, দেশের খবর

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক: সাতক্ষীরায় কলারোয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালামকে এক গৃহবধূর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় ধরেছেন এলাকাবাসী। পরে তারা ওই ছাত্রনেতাকে গণপিটুনি দেয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

আবদুস সালাম উপজেলার সরসকাটি ইউনিয়নের ক্ষেত্রপাড়া গ্রামের আবদুর রহমান মোড়লের ছেলে। শুক্রবার সন্ধ্যায় আবদুস সালাম আবারও ওই গৃহবধূর বাড়িতে গেলে গৃহবধূর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় তাকে ধরে ফেলে স্থানীয় লোকজন। তারা সালামকে পিটুনি দিয়ে আটকে রাখে।

বিষয়টি জানাজানি হলে উপজেলা ছাত্রলীগের এক নেতা গিয়ে বিক্ষুব্ধ জনতার হাত থেকে সালামকে মুক্ত করেন। ছাত্রলীগ ওই নেতার বিরুদ্ধে এর আগেও একাধিক নারী কেলেঙ্কারির অভিযোগ রয়েছে।

একই অভিযোগে ইতিপূর্বে তাকে কলারোয়া সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছিল। এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে আবদুস সালামের মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়।

কলারোয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আবু সাঈদ বলেন, আমি এলাকার বাইরে ছিলাম। বিষয়টি শুনেছি। ঘটনাটি সত্য হলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সাতক্ষীরা জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাদিকুর রহমান জানান, তার এই আচরণ সংগঠনের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ করেছে। এ কাজের সঙ্গে জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

এলাকাবাসীরা জানান, কলারোয়া উপজেলা ছাত্রলীগের ওই নেতা উপজেলার শ্রীপতিপুর এলাকার এক গৃহবধূর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। দীর্ঘদিন ধরে গৃহবধূর স্বামী বাড়িতে না থাকায় প্রায়ই এই বাড়িতে যাওয়া-আসা করতেন আবদুস সালাম।