ইসলামপুর উপজেলা আ’লীগের পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন!!


সাহিদুর রহমান,ইসলামপুর প্রতিনিধি: জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের দলীয় চাপা কোন্দল অবশেষে প্রকাশ্যে রূপ নিয়েছে। শনিবার বিকালে উপজেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে কার্য্যনির্বাহী কমিটির সভা বর্জন করেছেন দলের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট আব্দুস ছালাম। পরে তিনি সভাস্থল ত্যাগ করে উপজেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ের গেইটে তাৎক্ষণিক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন।

তিনি অভিযোগ করেন, ক্ষমতার অপব্যবহার করে দলীয় সভাপতি স্থানীয় এমপি ফরিদুল হক খান দুলাল গঠনতন্ত্রের তোয়াক্কা না করে মনগড়া ভাবে দল পরিচালনা করছেন। তিনি দলের সাধারণ সম্পাদক ও ত্যাগী নেতাদের বঞ্চিত করে অন্যের মাধ্যমে সভার রেজুলেশন লিখিয়েছেন যা দলের গঠনতন্ত্রের পরিপন্থী কাজের মধ্যে অন্যতম বলে অভিযোগ করেন। এরই প্রতিবাদে তিনি সভা বর্জন করে এ প্রেস ব্রিফিং এর আয়োজন করেন।

এ সময় উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি জিয়াউল হক জিয়া, উপজেলা শ্রমিকলীগের আহ্বায়ক মাহবুবুল আলম মামুন, আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সরদার মাকসুদুর রহমান লাভলু প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

অপর দিকে, সন্ধ্যায় উপজেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে তাৎক্ষণিক ব্রিফিং করেন স্থানীয় এমপি ও দলীয় সভাপতি ফরিদুল হক খান দুলাল। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, সাধারণ সম্পাদকের চিঠির মাধ্যমেই সভার কাজ শুরু হয়েছিল। সভায় পূর্বের রেজুলেশন পাঠ করার পর তিনি আপত্তি জানিয়ে সভা বর্জন করে সভাস্থল ত্যাগ করেন।

তার বিরুদ্ধে দীর্ঘ নয় মাসেও সভার রেজুলেশন না লেখার অভিযোগ করা হয়। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে এমপি বলেন, দলের মধ্যে ওয়াকআউট করার কোন রেওয়াজ নেই। এটি জাতীয় সংসদের রেওয়াজ। মূলত: তিনি সভা বর্জন করেছেন, যা রীতিমত সংগঠন পরিপন্থী কাজ বলে প্রশ্ন উঠেছে।

এ সময় উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল বারী মন্ডল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুল লতিফ সরকার, সহ-সভাপতি হাবিবুর রহমান চৌধুরী, সভাপতি-সম্পাদক মন্ডলীর সদস্যবৃন্দ ও পৌর আওয়ামীলীগ সভাপতি-সেক্রেটারিসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

◷ ৩:২১ অপরাহ্ন ৷ রবিবার, জুলাই ২২, ২০১৮ দেশের খবর, ময়মনসিংহ