ভালবাসা কিনবেন? ভালবাসা?


ফয়সল আহমেদ খান, বাঞ্ছারামপুর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি :: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর সদর উপজেলায় প্রতিবন্ধী দম্পত্তির সন্ধান মিলেছে। পাঁচ বছর আগে তাা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়। তাদের সংসারে রয়েছে একটি ফুটফুটে মেয়ে শিশু, নাম পায়েল (৪)। অভাবের তাড়নায় প্রতিবন্ধী দম্পত্তি শেফালী ও উজ্জল ঘর হতে খাবারের খোঁজে বের হলে বিষয়টি প্রতিবেদকের নজরে আসে। এতদিন তারা প্রকাশ্যে আসেনি বলে জানা গেছে।

সরেজমিনে রবিবার উপজেলার মধ্যপাড়ায় গেলে দেখা যায়, শিশু পায়েল খাবারের জন্য কাঁদছিলো। প্রতিবন্ধী উজ্জ্বল মুখে কিছু বলতে না পারলেও স্ত্রী শেফালী জানায়, অর্থাভাবে গতকাল রাতে ৩ জনে আধপেট খেয়ে ঘুমান। ঘরে চাল-ডাল-নুঁন কিছুই নেই।ফলে,সকালে হন্যি হয়ে এবাড়ি-সেবাড়ি করছে বাচ্চাটির জন্য দুটি রুটি জোগাড়ের জন্য।

জানা যায়, উজ্জল কুমার দাস (৩০)। সঠিক চিকিৎসার অভাবে ১০ বছর আগে বাক ও চলন শক্তি হারায়। ৫ বছর আগে বিয়ে হয় শেফালী দাসের (২১)সাথে। শেফালী-কুঁজো এবং একটি পা অসাড়। বসবাস করছে অন্যের ভালবাসায় একটি ছোট্ট এক রুমের ঘরে।

কিভাবে সংসার চলে জানতে চাইলে শেফালী জানায়, ‘একটি পুরনো সেলাই মেশিন তাদের একমাত্র অবলম্বন। সেলাইয়ের কাজ জানা থাকায় বাম পা কাজ না করলেও ডান পা দিয়ে সেলাইয়ের কাজ করে কোনরকম খেয়ে না খেয়ে জীবন চলে।’

জানা গেছে, ৩দিন যাবত কোন কাজের অর্ডার নেই, তাই ঘড়ের চুলাও বন্ধ। অন্যদিকে মড়াঁর উপর খাড়ার ঘাঁ হয়ে সেলাই মেশিনটি নষ্ট হয়ে পড়ে আছে। মেরামতের টাকা পর্যন্ত নেই পরিবারটির কাছে। তবুও তাদের ভালবাসায় বিন্দুমাত্র ভাটা পড়েনি। শত কষ্টেও একে অপরকে আঁকড়ে ধরে কাটিয়ে দিতে চায় বাকি জীবনটাও।

◷ ১১:২১ অপরাহ্ন ৷ রবিবার, জুলাই ২২, ২০১৮ ফিচার