আড়াইহাজারে দুই পৌরসভায় ভোটগ্রহণ চলছে

১১:১৭ পূর্বাহ্ন | বুধবার, জুলাই ২৫, ২০১৮ ঢাকা, দেশের খবর

সৈয়দ সিফাত লিংকন, নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি :: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে দুই পৌরসভায় দ্বিতীয় নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হচ্ছে আজ বুধবার। নানা শংকা, অভিযোগ পেরিয়ে সেমাবার রাত পর্যন্ত টানা ১৯ দিনের আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শেষ হয়েছে। আজ সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ১৮টি ওয়ার্ডে কেন্দ্রের ২০টি ভোটকক্ষে বিরতিহীনভাবে চলবে এর ভোটগ্রহণ। ৪ জুলাই প্রতীক বরাদ্দ পেয়েই এলাকায় ব্যাপক প্রচার চালায় প্রর্থীরা।আড়াইহাজার পৌরসভায় মেয়র পদে ২, সাধারণ পদে ৩৪ ও সংরক্ষিত নারী আসনে ১১জন।

গোপালদী পৌরসভায় মেয়র পদে ২জন, সাধারণ (কাউন্সিলর) পদে ২৯ ও সংরক্ষিত নারী আসনে ১২জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। দুই পৌরসভায় ভোটার সংখ্যা ৪৯,০৮৫জন। এর মধ্যে নারী ভোটার ২৪,২৫৩জন, পরুষ ভোটার ২৪,৮৩২জন। আড়াইহাজার পৌরসভাং নং ওয়ার্ডে ভোটার- ১, ৮৮৬জন, ২ নং-১, ৬৭৪জন, ৩নং-১,৫৫৬জন, ৪নং-২,২৮৯জন, ৫নং- ৩,০৭৩জন, ৬নং-১, ২৩৬জন, ৭নং- ২,২২১জন, ৮নং- ৩,৩২৭জন, ৯নং ওয়ার্ডে – ২,৩৩৭জন।

এখানে ভোট কক্ষের সংখ্যা ৬২টি। ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা -৯টি। গোপালদী পৌরসভায় ১নং ওয়ার্ডে ভোটার ২,০২১জন, ২নং- ১,৮৮৭জন, ৩নং- ৩,২৫৩জন, ৪নং- ২,৫৯২জন, ৫নং- ২,০৪৭জন,৬নং- ১,৯১২জন,৭নং- ২,৯৮০জন, ৮নং- ৩,৩২৩জন,৯ নং-৮,৩১৩জন। ভোট কক্ষের সংখ্যা-৮৫টি। ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা -১১টি।

এরই মধ্যে ব্যালট ও বাক্সসহ ভোটের যাবতীয় সরঞ্জাম কেন্দ্রে কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। রিটার্নিং অফিসার ফয়সাল কাদের জানান, সুষ্ঠু ভোট আয়োজনে পুরো এলাকা নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে। নির্বাচন সুষ্ঠু করতে কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে জানিয়ে এ কর্মকর্তা বলেন, কেন্দ্রে কেন্দ্রে অস্ত্রসহ পুলিশ সদস্য থাকবে। যে কোনো অনিয়ম হলে সঙ্গে সঙ্গে অ্যাকশন নিতে বলেছি। ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলোয় পুলিশের পাশাপাশি ভোটের মাঠে রয়েছে র্যাব, বিজিবি ও ম্যাজিস্ট্রেট।

এদিকে নির্বাচনের প্রচারণার শেষ দিনেও সুষ্ঠু ভোট নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিএনপির প্রার্থী পারভীন আক্তার। অপরদিকে কোনো অভিযোগ বা শঙ্কা নেই জানিয়ে জয়ের আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী সুন্দর আলী। সোমবার সকাল থেকে রাত অবধি গণসংযোগের সময়ে বিএনপির প্রার্থী পারভীন, মুসফিকুর রহমান মিলন ও আওয়ামী লীগের প্রার্থী সুন্দর আলী এবং আব্দুল হালিম সিকদার এসব কথা বলেন।

এছাড়াও দুই পৌরসভায় ৬৩ জন কাউন্সিলর প্রার্থী ও সংরক্ষিত ৯টি ওয়ার্ডে ২৩ জন নারী কাউন্সিলর প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা তাদের শঙ্কা প্রকাশ করেছেন। পৌরসভায় ভোটারসংখ্যা ৪৯ হাজার ৮৫জন। এর মধ্যে পুরুষ ২৪ হাজার ৮০০শত ৩২জন এবং নারী ভোটার ২৪ হাজার ২০০শত ৫৩জন। ১৯ জুলাই বৃহম্পতিবার বেলা ১১টায় আড়াইহাজার উপজেলা পরিষদের হল অডিটরিয়ামে নির্বাচন নিয়ে প্রার্থীদের সাথে ইসির সচিব হেলালুদ্দনী আহমদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এখানে নির্বাচনে কালো টাকার ছড়াছড়ি, প্রার্থীদের এজেন্ট ও কর্মীদের হুমক-ধমকী দেওয়ার অভিযোগ করা হয়। সচিব সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন পরিচালনা করার প্রতিশ্রুতি দেন। প্রার্থীদের বিরুদ্ধে টাকা ওড়ানোর গুজব : আড়াইহাজার পৌরসভা ভোটের মাঠে উঁড়ছে টাকা। পাশাপাশি চলছে পেশিশক্তির মহড়া। এতে ভোট গ্রহণের মাহেন্দ্রক্ষণ যতই ঘনিয়ে আসছে, ততই ভোটারদের মধ্যে বাড়ছে শঙ্কা।

এছাড়া কয়েক দিন ধরেই কালো টাকার মাধ্যমে ভোট কেনার চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেছেন একাধিক প্রার্থী। নির্বাচনের আগের দিনের রাতকে চাঁদরাত বলেও মন্তব্য করেছেন অনেকে। ৮নং ওয়ার্ডে টেবিল ল্যাম্প প্রতীকের কাউন্সিলর প্রার্থী কামরুল হাসান আপেল অভিযোগ করেন, নির্বাচনে টাকা দিয়ে ভোট কেনার চেষ্টা করা হচ্ছে। অনেককে আবার ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে।