নির্বাচন নিয়ে ‘কলঙ্কজনক’ রেকর্ডের অধিকারী পাকিস্তান কার হাতে?

◷ ৫:৩৫ অপরাহ্ন ৷ বুধবার, জুলাই ২৫, ২০১৮ আন্তর্জাতিক, স্পট লাইট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: পকিস্তানের হাই ভোল্টেজ জাতীয় নির্বাচন প্রক্রিয়া চলছে৷ সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়েছে ভোট প্রক্রিয়া, চলবে সন্ধা ৬টা পর্যন্ত৷ মোট ৮৫ হাজার বুথে চলছে নির্বাচন প্রক্রিয়া৷ মোতায়েন ৪০ হাজার পুলিশ সহ ৩ লাখ ৭১ হাজার সেনা৷ পাকিস্তান ইলেকশন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী, দেশে প্রায় ১০.৫ কোটি রেজিস্টার্ড ভোটার রয়েছে৷

২৭২ তম সাধারণ নির্বাচনের সম্মুখীন পাকিস্তানবাসী৷ ১৯৭০ সাল থেকে পাক সাধারণ নির্বাচনের সূত্রপাত৷ প্রধানমন্ত্রীর পদে থাকাকালীন কেউই নিজের কার্যকালের মেয়াদ সম্পূর্ণ করতে পারেননি এ যাবৎ৷ যা খুব কলঙ্কজনক রেকর্ড। পাশাপাশি বর্তমান পরিস্থিতিকে মাথায় রেখে এই নির্বাচন যে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ৷

ব্যালট পেপারে হচ্ছে এই নির্বাচন৷ ৬টার পরেই পোলিং বুথে উপস্থিত ভোটকর্মীরা ভোটগণনার কাজ শুরু করবেন৷ রাত ৯টা থেকেই নির্বাচনী ফলাফল সংক্রান্ত খবর প্রকাশ্যে আসতে থাকবে৷ যদিও ছবি স্পষ্ট হবে মধ্যরাতে৷ পাকিস্তানের চারটি প্রান্ত- পাঞ্জাব, বেলোচিস্তান, খাইবার পাখতুনখওয়া এবং সিন্ধে চলছে নির্বাচন৷

সরকার গড়তে যুদ্ধ হচ্ছে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী জেলবন্দি নওয়াজ শরিফের দল বনাম অন্যতম বিরোধী নেতা ইমরান খান ও প্রয়াত বেনজির ভুট্টোর পুত্র বিলাওয়াল ভুট্টোর মধ্যে৷ সরকার গঠনের জন্য কমপক্ষে ১৩৭ আসনে জয় লাভ করতেই হবে৷ এই নির্বাচনে ত্রিকোণ যুদ্ধে পিএমএল-এন, পিটিআই এবং পিপিপি৷ গ্লোবাল টেররিস্টের তালিকাভুক্ত হাফিজ সইদও মিল্লি মুসলিম লীগ নামের একটি দল গঠন করে প্রায় ২০০ প্রার্থী নির্বাচনী ময়দানে নামালেও পাক ইলেকশন কমিশন এখনও একে ছাড়পত্র দেয়নি বলেই জানা গিয়েছে৷

একনজরে পাক জাতীয় নির্বাচন:
জাতীয় সংসদ ও প্রাদেশিক আইনসভা মিলে ৮৪৯টি আসনে ভোট
১১৮৫৫জন প্রার্থী
জাতীয় সংসদে আসন ২৭২
প্রাদেশিক আইনসভায় আসন ৫৭৭

জাতীয় সংসদের মোট ৬০ আসন সংরক্ষিত(মহিলাদের জন্য)২৭২টি আসনে সরাসরি ভোট:
পাঞ্জাবে পড়ছে ১৪১ টি আসন
সিন্ধ প্রদেশে ৬১ আসন
খাইবার পাখতুনখোয়ার ৩৯টি আসন
বালোচিস্তানে আছে ১৬টি আসন
উপজাতি অধ্যুষিত এলাকার (ফাটা) ১২টি আসন
জাতীয় রাজধানী (ইসলামাবাদ) সংলগ্ন ৩টি আসন
সংখ্যালঘুদের জন্য ১০ আসন রয়েছে৷