সংবাদ শিরোনাম

টেকনাফে বিজিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২, সাড়ে ৩ লাখ ইয়াবা উদ্ধারশাহজাদপুরের খুকনী ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলনে সভাপতি শাহজাহান, সম্পাদক আফাজহাজি সেলিমের আপিলের রায় পড়া শুরুফতুল্লায় গ্যাসের সিলিন্ডার থেকে আগুন, একই পরিবারের ৬ জন দগ্ধগাজীপুর পিরুজালী থেকে কিশোরের লাশ উদ্ধারদেশেই টিকা উৎপাদনের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রীকক্সবাজারে ইয়াবা সম্রাটের সহযোগীর বাড়ি থেকে ১ লাখ ২০ হাজার ইয়াবা উদ্ধারসিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্তরোহিঙ্গা শিশু অপহরণের পর হত্যার ঘটনায় নারীসহ দু’জন গ্রেপ্তারবেলকুচিতে দূর্বৃত্তদের আগুনে পুড়ে গেল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান !

  • আজ ২৪শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

কুয়াকাটার সৈকতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ-১, আহত-২

৭:৩৮ অপরাহ্ন | বুধবার, জুলাই ২৫, ২০১৮ দেশের খবর, বরিশাল

জাহিদ রিপন, পটুয়াখালী প্রতিনিধি: পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটা সৈকতে গোসল করতে নেমে এ আর সোহাগ রহমান (৩০) নামের এক যুবক নিখোঁজ রয়েছে। তার সাথের অপর দুই সঙ্গী সোহাগ (২০) ও মহসিন (২০) সাগরে ঢেউয়ের ঘূর্নিপাকে পড়ে গুরুতর আহত হয়েছে।

মুমুর্ষ অবস্থায় ওই দুই যুবককে উদ্ধার করে কুয়াকাটা হাসপাতালে চিকৎসা দেওয়া হয়েছে। আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১২ টায় এ ঘটনাটি ঘটেছে। এদিকে নিখোঁজ যুবকের সন্ধানে ও উদ্ধারে জন্য কাজ করছে স্থানীয় জেলেদের কয়েকটি ট্রলার-নৌকা, টুরিষ্ট পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের একটি ডুবরি দল। নিখোঁজ সোহাগ কুয়াকাটার একটি আবাসন কোম্পানীর সাথে কাজ করত। তার বাড়ি সাভারের আশুলিয়া এলাকায়। সে গ্রীনহাউজ কনস্ট্রাকশন ও কনসালটেশন’র এজন সিভিল ইঞ্জিনিয়ার। অপর দুই জনের বাড়িও একই এলাকায় বলে নিশ্চিত করেছে ট্যুরিষ্ট পুলিশ।

স্থানীয় ও টুরিষ্ট পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, তার বেশ কিছুদিন আগে সাভারের আশুলিয়া এলাকা থেকে কুয়াকাটার একটি হোটেলের নির্মাণ কাজ করতে আসেন। আজ বুধবার দুপুরের দিকে সৈকতে গোসল করতে নামলে তারা ঢেউয়ের ঘুর্নিপাকে মধ্যে পড়েন। এ সময় সোহাগ সিনিয়র পানিতে ভেসে যায়। তাকে উদ্ধারের চেষ্টাকালে অপর দুইজনও অসুস্থ হয়ে পড়ে। স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় ট্যুরিষ্ট পুলিশ তাদেরকে মুমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে কুয়াকাটা হাসপাতালে চিকিৎসা প্রদান করেছে।

কুয়াকাটা টুরিষ্ট পুলিশ জেনের ওসি মোঃ মনিরুজ্জামন জানান, বর্তমানে সাগর উত্তাল। তবে নিখোঁজ যুবককে উদ্ধারের টুরিষ্ট পুলিশ, জেলা পুলিশ, ফায়ার সাভির্স, কোষ্টগার্ড’র প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে।