প্রেমিকের কাছ থেকে ফিরিয়ে এনে পুলিশের সঙ্গে বিয়ে, বিয়ের পরদিন আবারো পালালো স্ত্রী!


রাজশাহী প্রতিনিধি: প্রেমিকের কাছ থেকে ফিরিয়ে এনে পুলিশের এক এসআই-এর সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হয়েছিলো কলেজছাত্রীকে। কিন্তু বিয়ের পরদিন আবারো সেই প্রেমিকের হাত ধরেই পালিয়ে গেছে মেয়েটি। রাজশাহীর বাঘা উপজেলায় এ ঘটনাটি ঘটে।

জানা যায়, উপজেলার দিঘা স্কুল অ্যান্ড কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ওই ছাত্রীর আড়ানী চকরপাড়া গ্রামের মুনছুর রহমানের ছেলে মেহেদী হাসানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক হয়। সম্পর্কের কারণে প্রায় দুই সপ্তাহ আগে তারা পালিয়ে যায়। মেয়ের বাবা আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতা হওয়ায় ছেলের বাবাকে পুলিশ দিয়ে থানায় উঠিয়ে আনেন। এর কয়েক ঘণ্টা পর মেয়েকে উদ্ধার করে আড়ানী পৌর মেয়র, বাউসা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান, বাঘা থানার ওসি মেয়ের বাবার হাতে মেয়েকে উঠিয়ে দেন। এর মধ্যে মেয়েকে জোর করে গত সোমবার গভীর রাতে পুলিশের এক এসআইয়ের সঙ্গে রেজিস্ট্রি করে বিয়ে দেয়া হয়। পরবর্তীতে স্ত্রীকে আনুষ্ঠানিকভাবে উঠিয়ে নেয়ার দিন ঠিক করে ওই পুলিশ কর্মকর্তা নিজ বাড়িতে চলে যান। ওই রাতেই তার স্ত্রী প্রেমিক মেহেদী হাসানের হাত ধরে আবারো পালিয়ে যায়।

বাঘা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রেজাউল হাসান জানায়, দুই সপ্তাহ আগে মেয়ের বাবা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছিলেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ছেলের বাবার কাছে ঘটনাটি জানার জন্য থানায় আনা হয়েছিলো। তবে মেয়েকে ফেরত দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে থানা থেকে চলে যান তারা। তার কয়েক ঘণ্টা পর মেয়েকে তার বাবার হাতে তুলে দেয়া হয়। পুনরায় মেয়েটি তার প্রেমিকের হাত ধরে চলে গেছে বলে শুনেছি।

◷ ৭:৫৫ অপরাহ্ন ৷ বুধবার, জুলাই ২৫, ২০১৮ দেশের খবর, রাজশাহী