রাজশাহীতে ‘বোমা’ ফাটালেন বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী!

সময়ের কণ্ঠস্বর :: কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, আমি বিএনপির সভায় আসিনি, কামাল হোসেনের নেতৃত্বে ঐক্যফ্রন্টের সভায় এসেছি। খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে চাইলে ঐক্যফ্রন্ট অটুট রাখতে হবে। বাংলাদেশের রাজনীতি মানেই খালেদা জিয়া, তাকে বন্দি রাখা সম্ভব নয়।

শুক্রবার বিকেলে রাজশাহীর মাদ্রাসা মাঠে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আয়োজিত জনসভায় তিনি একথা বলেন। বাংলাদেশের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে সাম্প্রতিক সময়ে স্মরণকালের আলোচিত বক্তব্য দিয়েছেন তিনি। তার এই রাজনৈতিক বক্তব্যকে অনেকে ‘রাজনৈতিক বোমা’ হিসেবে উল্লেখ করছেন।

পুলিশদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করে কাদের সিদ্দিকী বলেন, আপনি এ রকম বয়োজ্যেষ্ঠ মানুষদের সামনে বললেন আপনাদের মিটিং করতে বাধা নেই, আমার গাড়ি তো পাঁচবার ধরছে পুলিশ, তারপরেও আমাকে ভুল রাস্তা দেখিয়ে দিয়েছে। আল্লাহ যদি আমাকে দুটি বছর সময় দেয় তাহলে আমি খুঁজে বের করব, আমি খুঁজে বের করব, যে বেটারা আমার গাড়ি ঘুরিয়ে দিয়েছে আমি ওদের মাথা ঘুরিয়ে দেব।

তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাদের কথা দিয়েছিলেন, আর পুলিশ ধরবে না, সভা সমাবেশে বাধা দেবে না। আপনারা রাস্তায় মিটিং করবেন না, আপনারা মাঠে মিটিং করবেন। আপনারা রাজশাহীর নেতারা, আপনার রাজশাহীর পুলিশরা আমাদের রাস্তায় মিটিং করতে বলেছিল। আপনি (শেখ হাসিনা) বলেন রাস্তায় মিটিং করবেন না আর আপনার পুলিশরা বলে রাস্তায় মিটিং করতে।

সমাবেশে বঙ্গবীর বলেন, আমি টাঙ্গাইল থেকে সড়কপথে এসেছি, আমি গরিব মানুষ, গরিবের মতো চলাফেরা করি, রাস্তায় রাস্তায় শেখ হাসিনার মাইটা পুলিশরা বাধা দিয়েছে, আমাকেও ঘুরাতে পারে নাই, এই মাঠের মানুষকেও ঘুরাতে পারে নাই।

পুলিশদের উদ্দেশে কাদের সিদ্দিকী আরও বলেন, আমরা সংসদে থাকতে অন্তত ৭ বার পুলিশদের সুযোগ-সুবিধার জন্য প্রস্তাব করেছিলাম সেই জন্য আজকে এত বেতন। শুধু হাসিনার কথা নয় আর কদিন পর আমাদের কথাও শুনবেন আপনারা।

তিনি বলেন, যে পুলিশরা ঘুষ দিয়ে ভর্তি হয়েছেন, আমি এই রাজশাহীর মাদ্রাসা মাঠে কথা দিয়ে গেলাম, আপনাদের ঘুষের টাকা আমি ফিরিয়ে দেব। সব টাকা দিতে পারব না। আমি একটা মনে মনে হিসাব করে রেখেছি যারা আওয়ামী লীগের আমলে পুলিশে ভর্তি হয়েছে তাদের প্রত্যককে আমরা ১০ লাখ টাকা আমরা ফিরিয়ে দেব।

মঞ্চের সামনে উপস্থিত নারী নেত্রীদের দেখিয়ে কাদের সিদ্দিকী বলেন, এখানকার অর্ধেক নারী আমার দলে থাকলে শেখ হাসিনাকে ৩ দিনের মধ্যে ক্ষমতা থেকে নামাতাম।