নির্বাচনের কারণে বিশ্ব ইজতেমা স্থগিত, ভারত যাবে প্রতিনিধিদল

সময়ের কণ্ঠস্বর :: একাদশ সংসদ নির্বাচনের কারণে বিশ্ব ইজতেমার স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার, দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তাবলিগ জামাতের দুই পক্ষের সঙ্গে বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

নির্বাচনের আগে সব ধরনের জমায়েত নিষিদ্ধ থাকায় এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এছাড়া, তাবলিগ জামাতের দুই পক্ষের বিরোধ থাকায় এবারের ইজতেমার আলাদাভাবে দুইভাগে পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আনিছুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘নির্বাচনের আগে সব ধরনের জমায়েত নিষিদ্ধ। একইসঙ্গে তাবলিগের জামাতের মধ্যে বিরোধও রয়েছে। এসব বিবেচনায় তাবলিগের বিশ্ব ইজতেমা স্থগিত করা হয়েছে। একইসঙ্গে তাবলিগের দুই পক্ষের সব কার্যক্রম স্থগিত রাখা হয়েছে। তারা কোনও জোড় (জমায়েত), ওজহাতি জোড় (স্পষ্টকরণ জমায়েত) কিছুই করতে পারবেন না। এছাড়া একটি প্রতিনিধি দল ভারত যাবে। প্রতিনিধি দলের সদস্যরা আলাপ-আলোচনা করে সমাধান করবেন।

তিনি আরও বলেন, ‘নির্বাচন শেষ হলে দুই পক্ষ বসেই তারিখ নির্ধারণ করবে। সেক্ষেত্রে সরকার সব ধরনের সহায়তা দেবে।’

এই বিরোধ নিরসনে ৬ সদস্যের প্রতিনিধি দল ভারত যাবে। সেখান থেকে ফেরার পর এবং নির্বাচন শেষ হলে ইজতেমার নতুন তারিখ নির্ধারণ করা হবে। একইসঙ্গে তাবলিগের দুই পক্ষের সব কার্যক্রম স্থগিত রাখা হয়েছে। পূর্ব নির্ধারিত সময় অনুযায়ী জানুয়ারিতে বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিলো।