🕓 সংবাদ শিরোনাম

 ত্রিশালে পণ্য বিপনন মনিটরিং কমিটির মতবিনিময় সভাপটুয়াখালীতে গৃহবধুর মৃতদেহ উদ্ধার, স্বামী গ্রেপ্তারটাঙ্গাইলে সড়ক দূর্ঘটনায় ছাত্রীসহ নিহত-২আমিরাতের সর্বোচ্চ পর্বত জেবেল জাইসহিলি ইমিগ্রেশন দিয়ে ফিরতে পারবেন ভারতে আটকেপড়া বাংলাদেশিরানাম্বার ব্লাকলিষ্টে দেওয়ায় যুবকের বাড়িতে কলেজছাত্রীর অবস্থান!সৌদিআরবকে ‘বিশ্বের সবচেয়ে আশাবাদী’দেশ হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছেএকটা কার্ড করে দেনা বাজান, খেয়ে বাঁচি ! ফুলবাডীতে সামদ্রিক শৈবাল চাষের প্রোজেক্ট পরিদর্শন করলেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনারপটুয়াখালীতে চাল আত্মসাতের মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

  • আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতির ওপর হামলা


❏ বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ২০, ২০১৮ অপরাধ, চট্টগ্রাম, দেশের খবর

মো:ইমাম উদ্দিন সুমন, স্টাফ রিপোর্টার, সময়ের কণ্ঠস্বর: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আরিফুর রহমান শুভ (২৮)’র ওপর অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়েছে একদল সন্ত্রাসী। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় এ হামলায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে তার শরীর রক্তাক্ত ও ক্ষতবিক্ষত হয়ে গেছে।

জানা যায়, উপজেলা সিরাজপুর ইউনিয়নের মানিকপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে। আহতের ভাই ব্যরিষ্টার মওদুদ আহমদের এপিএস মোমিনুর রহমান সুজন জানান, আমার ভাই ব্যরিষ্টার মওদুদ আহমেদসহ চরপার্বতীতে ধানের শীষের গণসংযোগে যোগ দেয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হয়েছিল। পথিমধ্যে সে মানিকপুর স্কুলের সামনে আসলে সিরাজপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের চিহ্নিত ৪০-৫০ জনের একদল সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায়। এতে সে গুরুতর আহত হয়। তাকে স্থানীয়রা প্রথমে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে তার অবস্থা অবনতি ঘটলে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

আমার ভাই এখন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। এ ব্যাপারে কোম্পানীগঞ্জ থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এ হামলায় ব্যরিষ্টার মওদুদ আহমদ তীব্র নিন্দা জানান এবং দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবী জানান। এ ব্যাপারে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যরিষ্টার মওদুদ আহমদ হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, নোয়াখালী-৫ আসনে ধানের শীষের পক্ষে নেতাকর্মীদের ওপর প্রতিনিয়তই হামলা করা হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, আমার ছবিসহ ধানের শীষের পোস্টারগুলো কোথাও লাগাতে দিচ্ছে না সন্ত্রাসীরা।

বিএনপি নেতাকর্মীরা ভোটারের কাছে যেতে চাইলে সেখানেও হামলা করা হয়। আমার এলাকায় এ পর্যন্ত ছাত্রদল, যুবদল ও বিএনপির অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা হামলার শিকার হয়ে হাসপাতালে ও জেলে রয়েছে। তাদের ওপর হামলা চালিয়ে উল্টো তাদেরকে আসামী করে মামলা করা হচ্ছে।