🕓 সংবাদ শিরোনাম

খেলার আগে মাঠে ফিলিস্তিনের পতাকা ওড়ালেন কুড়িগ্রামের ক্রিকেটারেরাপাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে থানায় নেওয়া হলো প্রথম আলোর রোজিনা ইসলামকেকর্মস্থলে ফিরতে গাদাগাদি করে রাজধানীমুখী লাখো মানুষশেরপুরে পৃথক ঘটনায় একদিনে ৭ জনের মৃত্যুএক বিয়ে করে দ্বিতীয় বিয়ের জন্যে বড়যাত্রীসহ খুলনা গেল যুবক!আমার মৃত্যুর জন্য রনি দায়ী! চিরকুট লিখে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যাইসরাইলীয় আগ্রাসনের  বিরুদ্ধে ইসলামী বিশ্বের নিন্দার নেতৃত্বে সৌদি আরবত্রিশালে সড়ক দূর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যুতে নিহতের বাড়ীতে চলছে শোকের মাতমকলাপাড়ায় এক সন্তানের জননীর মরদেহ উদ্ধারটাঙ্গাইলে কৃষক শুকুর মাহমুদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার-১

  • আজ মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৮ মে, ২০২১ ৷

পুলিশ-বিজিবির কড়া নিরাপত্তায় বিএনপির প্রার্থী মফিকুল হাসান তৃপ্তির মিছিল ও গণসংযোগ


❏ সোমবার, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৮ খুলনা

মহসিন মিলন, বেনাপোল প্রতিনিধি: যশোর-১ (শার্শা) আসনের শার্শা উপজেলায় নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই বাড়ছে আওয়ামী লীগের প্রচার-প্রচারণা। পুলিশের আকস্মিক গ্রেফতার অভিযানে আত্মগোপনে যেতে শুরু করেছে বিএনপি নেতাকর্মীরা।

আজ সোমবার দুপুরে বেনাপোলে পুলিশ ও বিজিবির কড়া নিরাপত্বার মধ্য দিয়ে বিএনপির প্রার্থী মফিকুল হাসান তৃপ্তি তার দলীয় নেতা কর্মীদের নিয়ে মিছিল ও গণসংযোগ করেছে।

ইতিমধ্যে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে আকস্মিক অভিযান চালিয়ে বিএনপি-জামায়াতের ২৫ কর্মীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের যশোর জেলা সহসভাপতি শেখ আফিল উদ্দিন। নৌকা প্রতীক পাওয়ার পর থেকে দিন রাত পরিশ্রম করে নেতাকর্মীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে দলীয় অন্তর্কোন্দল মিটিয়ে শার্শা উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে গণসংযোগ করে চলেছেন।

ইতিমধ্যে তিনি ১১টি ইউনিয়নে গণসংযোগ কর্মসূচি ও পথসভা করেছেন এবং ওই সব ইউনিয়নগুলোতে নৌকা মার্কাকে বিজয়ী করতে ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের  নেতাকর্মীরা।

শার্শা উপজেলার আওয়ামী লীগের তৃণমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা বলছেন, প্রচারের প্রথম দিকে কিছু দলীয় সমস্যার কারণে কর্মী-সমর্থকরা প্রচারে নামেনি। এখন ইনশাল্লাহ দলের নেতাকর্মীদের অভ্যন্তরীণ কোন্দল মিটিয়ে সবাইকে নিয়ে গণসংযোগ করায় সবার মধ্যে উৎসাহ বিরাজ করছে এবং আওয়ামী লীগের গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

অপর দিকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী বিএনপির সাবেক সংসদ মফিকুল হাসান তৃপ্তি। তিনি প্রতীক পাওয়ার পর শার্শা উপজেলাস্থ তার নিজ বাড়িতে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে আলোচনা করে দলীয় কোন্দল মিটিয়ে ১১টি ইউনিয়নের মধ্যে মাত্র ৩টি ইউনিয়নে পথসভা ও গণসংযোগের কর্মসূচি করেন।

ইতিমধ্যে তিনি ডিহি, নিজামপুর ও লক্ষনপুর ইউনিয়নে গণসংযোগ করলেও হঠাৎ করে সোমবার পুলিশ ও বিজিবির পাহাড়ায় বেনাপোলে আকস্মিক মিছিল ও গণসংযোগ করেছেন। ইতিমধ্যে শার্শা ও বেনাপোল থানায় ২৫ জন বিএনপি জামায়াতের নেতাকর্মী গ্রেফতার হওয়ায় হওয়ার পর সিনিয়র নেতারা গ্রেফতার এড়াতে আত্মগোপনে চলে গেছে।

এ বিষয়ে বিএনপির প্রার্থী মফিকুল হাসান তৃপ্তি বলেন, নির্বাচনে আমি এবং আমার বিএনপির নেতা কর্মীদের গণসংযোগ করতে দিচ্ছে না। তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হুমকী দিচ্ছে ভোট কেন্দ্র না যেতে। সারাদেশে বিএনপির গণজোয়ার দেখে আওয়ামী লীগ দিশাহারা হয়ে পড়েছে তাই আজ তারা আমাদের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করে আতঙ্ক সৃষ্টি করছে।

গ্রেফতারের বিষয়ে শার্শা থানা ওসি মশিউর রহমান বলেন, এটা আমাদের রুটিন ওয়ার্ক এবং শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের লক্ষ্যে এই অভিযান। তবে কোন নিরিহ লোকজনদের নামে মামলা বা আটক করা হচ্ছে না।