• আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

ইভিএম নিয়ে শঙ্কিত বিএনপির রিটা রহমান


❏ শুক্রবার, ডিসেম্বর ২৮, ২০১৮ রংপুর

মেজবাহুল হিমেল, রংপুর:: ইলেকট্রিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট কারচুপির আশংকা প্রকাশ সাংবাদিকদের সহযোগিতা চেয়েছেন রংপুর-৩ আসনের জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রার্থী রিটা রহমান।

তিনি বলেছেন, ‘ইভিএম নিয়ে সাধারণ মানুষ এখনও শঙ্কিত। কোথাও সারা মেলেনি। মক ভোটে ভোটারদের উপস্থিতি নেই। ইভিএমে ভোট কারচুপির সম্ভাবনা রয়েছে। এ কারচুপি ঠেকাতে সাংবাদিকদের ‘ওয়াচ ডগ’ এর ভূমিকা পালন জরুরী।’

বৃহস্পতিবার (২৭ ডিসেম্বর) রাত সাড়ে নয়টায় রংপুর বিএনপি’র দলীয় কার্যালয়ে তিনি এ অভিযোগ করেন।
রিটা রহমান বলেন, ‘ভোট চুরি হবে না, তার নিশ্চয়তা নেই। ইভিএম ব্যবহার বন্ধে হাইকোর্টে রিট করেও ফলাফল পাইনি। অথচ এটা একটা অপরিচিত প্রক্রিয়া। পশ্চিমা দেশ থেকে আনা ইভিএমে স্বচ্ছ ভোট হবার সম্ভাবনা নেই। তারপরও আমরা আন্দোলনের অংশ হিসেবে নির্বাচনে আছি, শেষ পর্যন্ত থাকব।’

বর্তমান সরকারের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটছে আদালত ও নির্বাচন কমিশনে এমন অভিযোগ তুলে ন্যাশনাল পিপলস পার্টি অব বাংলাদেশের আহবায়ক রিটা রহমান বলেন, ‘বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টের নেতা-কর্মীদেরকে সরকারের লোকজন এবং প্রশাসন হয়রানি করছে। প্রতিদিন বাড়ি বাড়িতে হানা দিচ্ছে। ওয়ারেন্ট ছাড়াও গ্রেফতার করছে।’

এসময় তিনি তার নির্বাচনী ইশতেহারে আটটি বিষয় তুলে ধরে রংপুরে বিক্ষিপ্ত উন্নয়নের পরিবর্তে পরিকল্পিত উন্নয়ন করার প্রতিশ্রুতি দেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রংপুর মহানগর বিএনপির সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিজু, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রইচ আহমেদ, সাবেক এমপি শাহিদার রহমান জোসনা, মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম, মহানগর যুবদলের সভাপতি মাহফুজ-উন-নবী ডন, সাংগঠনিক সম্পাদক জহির আলম নয়ন, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মনিরুজ্জামান হিজবুল, মহানগরের সভাপতি নূর হাসান সুমন, সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া ইসলাম জিম প্রমুখ।