আগামীকালের নির্বাচনকে ঘিরে রাজবাড়ীতে সকল প্রস্ততি সম্পন্ন

⏱ | শনিবার, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৮ 📁 ঢাকা

রাজবাড়ী প্রতিনিধি: আগামীকাল একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। উৎসবমুখর ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানের সব প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন করেছে রাজবাড়ী জেলা রির্টানিং অফিসার।

সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলবে। ৩০০ আসনের মধ্যে একজন প্রার্থীর মৃত্যু জনিত কারণে ২৯৯ আসনে ভোট গ্রহণ করা হবে। এর মধ্যে রাজবাড়ী ১ (২০৯) ও রাজবাড়ী ২ (২১০) আসনেও একিই নিয়মে ভোট গ্রহণ করা হবে।

জেলা প্রশাসক ও রির্টানিং কর্মকর্তার কার্যালয় সুত্রে জানাগেছে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজবাড়ী-১ ও রাজবাড়ী-২, দুটি আসনের মোট ৩১২ টি ভোট কেন্দ্রে ভোট প্রহন হবে। এর মধ্যে ১৮৭ টি কেন্দ্র গুরুত্বপূর্ন (ঝুকিপূর্ন) ও ১২৫ টি কেন্দ্রকে সাধারন কেন্দ্র হিসেবে ঘোষনা করা হয়েছে। ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজবাড়ীর দুটি আসন থেকে মোট ৮ লক্ষ ৮ হাজার ৬ শত ৬ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবে।

এ ব্যপারে রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক ও জেলা রির্টানিং কর্মকর্তা মোঃ শওকত আলী জানান, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে রাজবাড়ী জেলার পাঁচটি উপজেলায় দুটি সংসদীয় আসনের জন্য ১১ প¬াটুন সেনা সদস্য ও ৬ প¬াটুন বিজিবি সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এছাড়াও জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কেউ যাতে কোন বিশৃঙ্খলা করতে না পারে এবং সবাই যাতে নিরাপদে নির্বিঘেœ ভোট কেন্দ্রে গিয়ে তাদের ভোটাধীকার প্রয়োগ করতে পারে সে জন্য জেলা পুলিশ, গোয়েন্দা পুলিশ ও সাদা পোশাকে পুলিশ কাজ করছে।

২৮ ডিসেম্বর শুক্রবার সকালে রাজবাড়ীর জেলা প্রশাসক ও রির্টানিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে ব্যালট পেপার ও ব্যালট বাক্স বুঝে নেন স্ব স্ব উপজেলার নির্বাহী অফিসার ও সহকারী রির্টানিং কর্মকর্তারা।

রাজবাড়ী ১-সংদীয় আসন ২০৯-
রাজবাড়ী ১আসনে নির্বাচনের মাঠে আছেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী (নৌকা প্রতিক) কাজী কেরামত আলী, নৌকার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি-ঐফ্যন্টের প্রার্থী রাজবাড়ী ১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়ম, ইসলামী আন্দোলন জোটের প্রার্থী হাত পাখা প্রতীকে মো.জাহাঙ্গীর আলম খান। যদিও ভোট যুদ্ধে মূলত লড়াই হবে নৌকা ও ধানের শীষে।

উলে¬খ্য, রাজবাড়ী-১ আসনে মোট ভোটার রয়েছেন ৩ লাখ ৪৬ হাজার ৩৭২ জন। যার মধ্যে পুরুসষ ভোটার ১ লাখ ৭৪ হাজার ৩৯ ও মহিলা ভোটার ১ লাখ ৭২ হাজার ৩৩৩ জন।
রাজবাড়ী ২ আসন-২১০ সংসদীয় আসন

রাজবাড়ী ২ আসনে নির্বাচনের মাঠে আছেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী (নৌকা প্রতিক) মোঃ জিল্লুল হাকিম, বিএনপি মনোনীত প্রার্থী (ধানের শীষ প্রতিক) বিএনপির প্রার্থী নাসিরুল হক সাবু, জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী এবিএম নুরুল ইসলাম, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোটের প্রার্থী মোঃ নাজমুল হাসান, ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী নুর মহম্মদ ভুইয়া, জাসদের প্রার্থী সুশান্ত কুুমার সরকার সহ মোট ৫জন প্রার্থী। যদিও মূলত লড়াই হবে নৌকা ও ধানের শীষে।

উল্লেখ্য: এবারের নির্বাচনে রাজবাড়ী-২ আসনের মোট ভোটার সংখ্যা ৪ লাখ ৬২ হাজার ৪৭৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছেন ২ লাখ ৩৪ হাজার ৫৪৪ জন এবং নারী ভোটার রয়েছেন ২ লাখ ২৭ হাজার ৯২৯ জন। এর মধ্যে নতুন ভোটার রয়েছে ৫৯ হাজার ৫৫০ জন।

রাজবাড়ী ২-
মোঃ জিল্লুল হাকিম চারবার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছেন। ১৯৯৬ সালে প্রথম নির্বাচনে তিনি জাতীয় পাট্রির প্রার্থীকে পরাজিত করে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন তিনি। পরের বার অর্থাৎ ২০০১ সালের নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী নাসিরুল হক সাবুর কাছে হেরে যান জিল¬ুল হাকিম। পরবর্তী ২০০৮ সালের নির্বাচনে নাসিরুল হককে পরাজিত করে ফের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন জিল্লুল হাকিম। ২০১৪ সালে তিনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন। মুক্তিযুদ্ধকালীন গোয়ালন্দ মহকুমা কমান্ডার ছিলেন তিনি।
বিএনপির প্রার্থী নাসিরুল হক সাবু ২০০১ সালে ধানের শীষ নিয়ে এ আসনের এমপি নির্বাচিত হন। তিনি রাজবাড়ী জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি।

রাজবাড়ী জেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান জানান, ভোটকেন্দ্র, কক্ষ, ভোটার তালিকা চূড়ান্ত করা হয়েছে। ভোটগ্রহণ কর্মকর্তাদের তালিকাও প্রস্তুত করা হয়েছে। রাজবাড়ী জেলার ২টি আসনে ৩১২টি কেন্দ্র, ১ হাজার ৫৪২টি ভোট কক্ষ চূড়ান্ত করা হয়েছে। এসব ভোটকেন্দ্র ও কক্ষের জন্য ৪ হাজার ৯৩৮ জন ভোটগ্রহণ কর্মকর্তা দায়িত্বে থাকবেন। এর মধ্যে ৩১২ জন প্রিজাইডিং অফিসার,১ হাজার ৫৪২ জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার,৩ হাজার ৮৪ জন পোলিং অফিসার আছেন।