🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৮ মে, ২০২১ ৷

লাকি সেভেন আ.স.ম ফিরোজকে মন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায় বাউফলবাসী


❏ মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১, ২০১৯ বরিশাল

কৃষ্ণ কর্মকার, বাউফল প্রতিনিধি: সপ্তমবারের মত নির্বাচিত হয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পটুয়াখালী-২ বাউফল আসন থেকে লাকি সেভেন হলেন আ.স.ম ফিরোজ। এবার লাকি সেভেন এ নেতাকে মন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায় বাউফলবাসী।

চিফ হুইপ আ.স.ম ফিরোজ নৌকা প্রতীক নিয়ে এ বছর ২ লক্ষ ৫২ হাজার ৮৭৩ ভোটারের মধ্যে এক লক্ষ ৮৫ হাজার ৭৮৩ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদন্ধি মোঃ নজরুল ইসলাম হাত পাখা প্রতীক নিয়ে ৯ হাজার ২৬৯ ভোট, ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে সালমা ইসলাম ৫ হাজার ৬৬০ ভোট ও কমরেড সাহাবুদ্দিন পেয়েছেন ১ হাজার ০৯৯ ভোট।

আওয়ামী লীগের দূর্গ হিসাবে পরিচিত পটুয়াখালী-২ (বাউফল) আসন। এই আসনে ১৯৭০ সালের নির্বাচনে এবং স্বাধীনতার পর ১৯৭৩ সালে আওয়ামী লীগের প্রবীন রাজনীতিবিদ অ্যাডভোকেট খন্দকার আবদুল আজিজ সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। পরবর্তীতে এই আসনে ১৯৭৯, ১৯৮৬, ১৯৯১ ও ১৯৯৬ সালের নির্বাচনে এমপি নির্বাচিত হন বরিশাল বিএম কলেজের সাবেক ভিপি বাউফল উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ.স.ম ফিরোজ।

আওয়ামী লীগের শক্ত ঘাঁটি হওয়া সত্বেও ২০০১ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের হাতছাড়া হলেও ২০০৮ সালের নির্বাচনে আসনটি পুনরুদ্ধার করেন আ.স.ম ফিরোজ। এরপর তাকে জাতীয় সংসদের হুইপ করা হয়। ২০১৪ সালের নির্বাচনে পুনরায় নির্বাচিত হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আ.স.ম ফিরোজের সততা ও কর্মদক্ষতায় খুশি হয়ে জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ পদে অলংকৃত করেন।

বাউফল উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোতালেব হাওলাদার বলেন, লাকি সেভেন আ.স.ম ফিরোজকে বার বার নির্বাচিত করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দিচ্ছে বাউফলবাসী। এবার বাউফলবাসীর প্রাণের দাবি যেন তাদের এ নেতাকে মন্ত্রী করে বাউফলবাসীকে অলংকৃত করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।