ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাংবাদিক গ্রেফতার-রিমান্ড নিয়ে ফখরুলের বিবৃতি

৯:২৪ অপরাহ্ন | শনিবার, জানুয়ারী ৫, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর: শনিবার এক বিবৃতিতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পেশাগত দায়িত্বপালনে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দুই সাংবাদিককে আসামি, একজনকে গ্রেফতার এবং রিমান্ডে নেয়ার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এ সময় তিনি দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে বলেন, আমি অবিলম্বে সাংবাদিক হেদায়েত হোসেন এবং রাশিদুল হাসানের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত প্রতিশোধপরায়ণ মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি করছি।

খুলনা প্রেসক্লাবের সাবেক কোষাধ্যক্ষ সাংবাদিক হেদায়েত হোসেনকে গ্রেফতার ও রিমান্ডে নেয়া এবং একই মামলায় রাশিদুল হাসানকে আসামি করার ঘটনায় এ বিবৃতি দেন ফখরুল।

বিবৃতিতে ফখরুল বলেন, ‘ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মতো কালো আইন প্রণয়ন করে এখন গণমাধ্যমের সাংবাদিকদের ওপর চলছে বর্তমান সরকারের ভয়াবহ দমনপীড়ন। তাদের কণ্ঠরোধ করতে সরকারের কালো আইনে মামলা ও গ্রেফতারসহ ন্যক্কারজনক আচরণের নিন্দা জানানোর ভাষা আমার জানা নেই।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, জাতীয় নির্বাচনে খুলনায় সরকারি দলের অপকর্ম ও অনিয়মের তথ্যফাঁস এবং সত্য প্রকাশে সাহসী ভূমিকা পালনের জন্য বাংলা ট্রিবিউনের খুলনা প্রতিনিধি হেদায়েত হোসেনকে গ্রেফতার ও রিমান্ডে নেয়া এবং মানবজমিনের স্টাফ রিপোর্টার রাশিদুল হাসানকে ওই মামলায় আসামি করা গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও বাকস্বাধীনতার ওপর সরাসরি আক্রমণ।

তিনি বলেন, ৩০ ডিসেম্বর মহাডাকাতির নির্বাচনের পর সরকার এখন জনগণ, রাজনৈতিক দল ও গণমাধ্যমের ওপর নিষ্ঠুর আচরণ বাড়িয়েছে। নির্বাচন বিষয়ে সরকারের মহাজালিয়াতি নিয়ে কেউ কোনো সমালোচনা না করতে পারে, সে জন্যই সাংবাদিকদের কণ্ঠরোধ করতে আগেভাগেই কালাকানুন তৈরি করা হয়েছিল।

তবে এই স্বৈরাচারী সরকারের প্রচণ্ড দমননীতির মধ্যেও বেশকিছু নির্ভীক সাংবাদিক সাহসী দায়িত্বপালন করে যাচ্ছেন সত্য ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে।আওয়ামী সরকারের জুলুমের মুখেও হেদায়েত ও রাশিদুল যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন, সে জন্য আমি তাদের সঙ্গে সংহতি ঘোষণা করছি।