সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ২১শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

তিল ধারণের জায়গা নেই শোলাকিয়া ময়দানে

২:৫৫ অপরাহ্ন | রবিবার, জানুয়ারী ৬, ২০১৯ ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর, কিশোরগঞ্জ :: আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের কিশোরগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানাজা শেষে গার্ড অব অনার দেয়া হয়।

এদিকে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামকে শেষবারের মতো শ্রদ্ধা জানাতে এবং জানাজায় অংশ নিতে শোলাকিয়া ময়দানে লাখো মানুষের ঢল নামে। বিশাল শোলাকিয়া ময়দানে তিল ধারণের মত কোন জায়গা ছিল না।

এর আগে রোববার সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় প্রথম জানাজা শেষে হেলিকপ্টারে করে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে তার মরদেহ কিশোরগঞ্জে নিয়ে যাওয়া হয়। শোলাকিয়া ময়দানে জানাজা শেষে সৈয়দ আশরাফের মরদেহ ময়মনসিংহে নেয়া হবে।

সেখানে জানাজা শেষে আজই বনানী কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।সকাল সাড়ে ১০টার পর জাতীয় সংসদ ভবনের দক্ষিণ প্লাজায় সৈয়দ আশরাফের প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

জানাজায় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ছাড়াও অংশ নেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়াসহ সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

তার পর মরহুমের মরদেহে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

এর পর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়া, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদসহ বিরোধী দলের শীর্ষ নেতারা।

প্রসঙ্গত, বৃহস্পতিবার রাতে ব্যাংককের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ইন্তেকাল করেন সৈয়দ আশরাফ। তিনি ফুসফুস ক্যান্সারে ভুগছিলেন। শনিবার তার লাশ দেশে আনা হয়।