সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

কারো নিঃস্বাস তো কারো কিডনির পাথর, তারকাদের এসবও লাখ টাকা!


বিনোদন ডেস্ক :: তারকাদের জামা-কাপড় হরহামেশাই নিলামে বিক্রি হওয়ার খবর পাওয়া যায়। তারকারা যা পরেন, তা-ই আপামর জনতার স্টাইল হয়ে যায়। তবে ইন্টারনেটে স্বপ্নের তারকাদের আজব আজব জিনিস বিক্রির নজিরও আছে। এসব জানলে হতভম্ব না হয়ে পারা যায় না। তারকাদের অদ্ভুত সব পণ্য বিক্রির খবর জেনে নিন এক ঝলকে।

ব্রাঞ্জেলিনার নিঃশ্বাস: কৌতুক মনে হলেও সত্যি সত্যিই ব্র্যাড পিট ও অ্যাঞ্জেলিনা জোলির মুখ থেকে নির্গত নিঃশ্বাস কৌটায় জমিয়ে রাখা হয়েছিলো। পরে তা অনলাইনে বিক্রি হয় ৫২৩ মার্কিন ডলারে। তবে নিঃশ্বাসটা কতোটা নিখাদ সে নিশ্চয়তা ছিলো না!

স্কারলেটের টিস্যু :ঠান্ডায় সর্দি হয়েছিলো মার্কিন অভিনেত্রী স্কারলেট জোহানসনের। তখন তিনি যে টিস্যু ব্যবহার করেছিলেন তা বিক্রি হয়েছে ৫ হাজার ৩০০ মার্কিন ডলারে। বোঝেন কি অবস্থা! কত রকমের মানুষ আছে আশে-পাশে!

ব্রিটনির চুইংগাম : মার্কিন পপতারকা ব্রিটনি স্পিয়ার্সের একবার একটি চুইংগাম কিছুক্ষণ মুখে রেখেছিলেন। সেটি বিক্রি হয়েছে ১৪ হাজার মার্কিন ডলারে। এ ছাড়া তার অর্ধেক খাওয়া স্যান্ডউইচ বিক্রি হয় ৫০০ ডলারে।

টিম্বারলেকের টোস্ট : মার্কিন সংগীতশিল্পী জাস্টিন টিম্বারলেক ফ্রেঞ্চ টোস্ট অর্ধেক খেয়ে রেখে দিয়েছিলেন। সেটি নিলামে বিক্রি হয়েছে ১ হাজার ২৫ মার্কিন ডলারে। সেই অর্থ ব্যয় হয়েছে দাতব্য সেবায়।

এলভিসের চুল : রক এন রোলের রাজা প্রয়াত এলভিস প্রিসলির এক ভক্ত তার চুল কৌটায় সংরক্ষণ করেছিলেন। পরে তা বিক্রি হয়েছে ১ লাখ ১৫ হাজার মার্কিন ডলারে।

লেননের দাঁত : বিটলস ব্যান্ডের প্রয়াত সংগীতশিল্পী জন লেননের একটি দাঁত এক দন্তচিকিত্‍সক নিলামে কিনে নিয়েছিলেন ১৯ হাজার পাউন্ডে।

মনরোর এক্স-রে : রূপালি পর্দার অপরূপা মেরিলিন মনরো বুকে এক্স-রে করিয়েছিলেন ১৯৫৪ সালে ফ্লোরিডায়। সেই এক্স-রে রিপোর্ট ৪৫ হাজার মার্কিন ডলারে বিক্রি হয়েছে নিলামে।

শ্যাটনারের কিডনির পাথর : অভিনেতা উইলিয়াম শ্যাটনারকে স্টার ট্রেক’ ছবির ক্যাপ্টেন জেমস টি.কার্ক হিসেবেই দর্শক বেশি চেনে। তার কিডনিতে পাথর হয়েছিলো। পরে তিনি সেটা বিক্রি করেছেন ২৫ হাজার মার্কিন ডলারে। সেই অর্থ ব্যয় হয়েছে দরিদ্রসেবায়।

◷ ১:৪৬ পূর্বাহ্ন ৷ সোমবার, জানুয়ারী ৭, ২০১৯ বিনোদন