৩৫০ কেজি থেকে মুক্তি পেতে সরকারের সাহায্য চাইলেন তিতি

১২:৪৫ পূর্বাহ্ন | বুধবার, জানুয়ারী ৯, ২০১৯ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: ইন্দোনেশিয়ার সেন্ট্রাল কালিমান্টান প্রদেশের পালাংকা রায়া সিটির এক মহিলা ওজন নিয়ে পড়েছেন বিপাকে। ওজন কমাতে না পেরে শেষে সরকারের সাহায্য চেয়েছেন তিনি। ৩৫০ কেজি ওই মহিলার নাম তিতি ওয়াতি। বয়স ৩৭। তিনি বলেন, ওজন কমাতে সরকার আমাকে সহায়তা করতে পারে।

গত ৭ বছর ধরে তিতির ওজন আশঙ্কাজনকহারে বাড়ছে। তিতির প্রদেশে তার মতো মোটা মহিলা আর নেই। নড়াচড়া করতে তার ভীষণ কষ্ট। বেশিরভাগ সময় তাই বাধ্য হয়ে তাকে বিছানাতেই থাকতে হয়। ওজন কমাতে নানা পদ্ধতি অবলম্বন করেছিলেন তিতি। ওজন কমাতে ভেষজ পানীয় পান করেছিলেন। তাতে নাকি কাজও হয়েছিল। কিন্তু সেটির অনেক দাম হওয়ায় আর সেটি কিনতে পারেননি।

এ জন্য বেশ শারিরীক কষ্ট পোহাতে হচ্ছে তিতিকে। প্রতিদিন ঘুম থকে ওঠার পর পা অসাড় হয়ে থাকে, সারা শরীরে ব্যথা হয়ে থাকে। এত কষ্টের পরও অবশ্য কোনো ওষুধ গ্রহণ করেননি তিতি। চিকিত্‍সকের মাধ্যমে স্বাস্থ্য পরীক্ষাও করাননি।

ভাড়া বাড়িতে ৫২ বছর বয়সী স্বামী এডি ও একমাত্র মেয়ে হার্লিনাকে (১৯) নিয়ে তিতির সংসার। হার্লিনার আশা, স্থানীয় সরকার ও স্বেচ্ছাসেবকরা তার মাকে ওজন কমাতে সাহায্য করবে।