ভূমি অফিসের সবাইকে সম্পদের হিসাব দিতে হবে: ভূমিমন্ত্রী

২:৫৮ অপরাহ্ন | শনিবার, জানুয়ারী ১২, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, চট্রগ্রাম- দুর্নীতির ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি উল্লেখ করে ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ জানিয়েছেন, আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ভূমি মন্ত্রণালয়ের অধীনে কর্মরত সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিজস্ব সম্পদের বিবরণ মন্ত্রণালয়ে জমা দিতে হবে।

শনিবার (১২ জানুয়ারি) দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এ কথা বলেন। মন্ত্রণালয়ে গিয়ে তিনি এ বিষয়ে লিখিত পরিপত্র জারি করবেন বলেও জানান।

ভূমিমন্ত্রী বলেন, ‘সারা দেশের ভূমি অফিসগুলোতে স্বচ্ছতা আনতে সব ভূমি অফিস সিসিটিভির আওতায় আনা হবে। সেখানে ভয়েস রেকর্ডের ব্যবস্থা থাকবে। কে কী করছে, না করছে সেটা মন্ত্রী-সচিবসহ নির্দিষ্ট পদস্থ কর্মকর্তারা মনিটরিং করবেন।’

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ২০১৪ সালে ভূমি প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেন। তখন অভিজ্ঞতা ছিল না। তবুও নিজস্ব উদ্যোগে অনেক কাজ করেছি। ওই সময় অনেক ভালো কাজ করেছি। ভূমি মন্ত্রণালয়ে জটিলতা, হয়রানি কাটাতে অটোমেশনের উদ্যোগ নিয়েছিলাম। এর সুফল পেতে থাকবে মানুষ।

তদবিরে বিশ্বাস করেন না উল্লেখ করে সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেন, যা কপালে থাকবে তা-ই হবে। তিনবার সংসদ সদস্য হয়েছি। নির্বাচনের পর ঢাকায় দৌড়াইনি। এলাকার মানুষের সঙ্গে ভালো সময় কাটিয়েছি। শপথ গ্রহণের দিন ঢাকা যাই। শপথ নিয়ে নিজের কাজে ব্যস্ত ছিলাম। রোববার শেষ কর্মদিবসে অফিস করি। তখন মন্ত্রী হওয়ার ফোন আসে। আমি বিশ্বাস করি, সততার বিকল্প নেই।

তিনি বলেন, শুভানুধ্যায়ীরা বিব্রতবোধ করে-এমন কোনো কাজ করবো না। দুর্নীতি আমাকে স্পর্শ করতে পারেনি, বুকে হাত দিয়ে বলতে পারবো। প্রধানমন্ত্রী আমাকে পূর্ণমন্ত্রী করে পুরস্কার দিয়েছেন। আমি সততা, দক্ষতা, স্বচ্ছতার মধ্যদিয়ে কাজ করবো।