বেনাপোল কাস্টমস হাউসে বসানো হয়েছে অত্যাধুনিক কেমিক্যাল ল্যাবরেটরি

৬:৩৪ অপরাহ্ন | রবিবার, জানুয়ারী ১৩, ২০১৯ খুলনা

মহসিন মিলন, বেনাপোল প্রতিনিধি: বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি করা কেমিক্যাল জাতিয় পন্যের সাথে যাতে বিস্ফোরক দ্রব্য আসতে না পারে সে জন্য বেনাপোল কাস্টমস হাউসে বসানো হয়েছে অত্যাধুনিক কেমিক্যাল ল্যাবরেটরি।

আজ রবিবার বিকেলে ২ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত এই ল্যাবটি উদ্বোধন করেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (শুল্ক, নিরীক্ষা, আধুনিকায়ন ও আন্তর্জাতিক বানিজ্য) খন্দকার মুহম্মদ আমিনুর রহমান।

তিনি আইসিপি চেকপোস্ট স্ক্যানার ও বন্দরের এলাকার বিভিন্ন স্থান পরিদর্শণ শেষে কাষ্টমস্ অফিসার্স ক্লাবে কাস্টমস অফিসার্স ও বিভিন্ন স্টেক হোল্ডারদের সাথে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

তিনি বলেন, আগামী ২০২১ সালের মধ্যে সারাদেশে সিংগেল উইন্ডোজ চালু করা হবে। যে সব আমদানিকারকরা সততার সাথে ব্যবসা করেন তাদের আমদানি পন্য পরীক্ষণ করা হবে না। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ৫০০ কোটি টাকা ব্যয়ে উন্নত মানের স্ক্যানার বসাবে গুরুত্বপূর্ন কাস্টমস হাউস ও শুল্ক স্টেশন গুলোতে। যাতে অধিকাংশ পন্য স্ক্যান করেই দ্রুত খালাশ দেয়া দেয়া যায় সে বিষয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড প্রকল্প হাতে নিয়েছে, অচিরেই তা বাস্তবায়ন করা হবে। বেনাপোলের ন্যায় সারা দেশে অনলাইনে নিলাম প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার জন্য সারা দেশে পদ্রক্ষপ নিয়োর বিষয়টির ওপর গুরুত্ব আরোপ করা হয়।

বেনাপোল কাস্টমস্ হাউজের কমিশনার মোহাম্মদ বেলাল হোসাইন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বন্দরের বিভিন্ন সমস্যা ও সম্ভাবনা নিয়ে বক্তব্য রাখেন – বেনাপোল স্থলবন্দর পরিচালক (ট্রাফিক) উপ-সচিব প্রদোষ কান্তি দাস, বেনাপোল কাস্টমস্ হাউজের এডিশনাল কমিশনার জাকির হোসেন, যুগ্ন কমিশনার শাকিলা পারভিন, ডেপুটি কমিশনার জাকির হোসেন, বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি আলহাজ্ব মফিজুর রহমান স্বজন, সহ-সভাপতি আলহাজ্ব নুরুজ্জামান, সাধারন সম্পাদক এমদাদুল হক লতা, সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব শামসুর রহমান, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক জামাল হোসেন ও মহসিন মিলন, বন্দর বিষয়ক সম্পাদক নাসির উদ্দীন প্রমুখ।