ভারতে পেঁয়াজ এখন গরুর খাদ্য!


আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ভারতে পেঁয়াজ এখন গরুর খাদ্যে পরিণত হয়েছে। জানা গেছে, কোলকাতা নাশিকে কেজি প্রতি পেঁয়াজ মাত্র পাঁচ পয়সায় বিক্রি হচ্ছে! পেঁয়াজের দাম পড়ে যাওয়ায় চাষিরা পড়েছেন মহাবিপাকে। কষ্টের ফলানো পেঁয়াজ ফেলে দিতেও পারছেন না। তাদের এ সমস্যার সমাধানে এগিয়ে এসেছেন রাখালরা। তারা গরুর গাড়ি নিয়ে এসে পেঁয়াজ তুলে নিয়ে যাচ্ছেন। তারা সেই পেঁয়াজ নিয়ে গিয়ে গরুকে খাওয়াচ্ছেন।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, নাশিকের নিপাড এলাকার গত নভেম্বরে কেজি প্রতি ১ টাকা ৪১ পয়সা করে পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে। লোকসানে ক্ষিপ্ত হয়ে সঞ্জয় নামের এক চাষি তার পেঁয়াজ বিক্রির পুরো টাকাটাই ‘মানি-অর্ডার’ করে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে।

এ নিয়ে দেশটিতে শোরগোল হওয়ায় প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে বিষয়টি তদন্ত শুরু করা হয়। নাশিকের পেঁয়াজ চাষিদের কাছে গিয়ে তাদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাসও দেন প্রশাসনের কর্মকর্তারা।

সেই আশাতেই তখন আর কম দামে পেঁয়াজ বেচেননি চাষিরা। দুমাস পেরিয়ে গেলেও সমস্যার কোনো সমাধান হয়নি। এদিকে নতুন পেঁয়াজ উঠতে শুরু করেছে। পুরনো পেঁয়াজেও চারা বেরিয়ে যাচ্ছে। এর মধ্যেই চাষিরা জানতে পারেন, কেজি প্রতি ৫ পয়সা দরে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে।

নিপাডের আর এক পেঁয়াজ চাষি খান্ডু বোরগড়ে বলেন, ‘‘সরকারের উপর ভরসা করেই ভুল করেছিলাম। এখন এত পেঁয়াজ ফেলে দেওয়া ছাড়া উপায় নেই।’’

কিন্তু ফেলতে গেলেও তো গাড়িভাড়া আর মজুর লাগবে? সমস্যার সমাধানে এগিয়ে এসেছেন গো-পালকেরা। সঞ্জয় বলেন, ‘‘আমাদের এলাকায় রাজস্থান থেকে আসা অনেক গো-পালকের দল রয়েছে। তাঁরা গরুর গাড়ি নিয়ে এসে পেঁয়াজ তুলে নিয়ে যাচ্ছেন। তাঁরা সেই পেঁয়াজ নিয়ে গিয়ে গরুকে খাওয়াচ্ছেন।’’

কিন্তু এর পর? সঞ্জয় বলেন, ‘‘গত বছর ব্যাঙ্ক থেকে আড়াই লক্ষ টাকা ঋণ নিয়ে পেঁয়াজ লাগিয়েছিলাম। ধার শুধতে পারিনি। এ বার বাধ্য হয়ে মহাজনের কাছ থেকে চড়া সুদে টাকা ধার নিয়েছি। স্ত্রীর গয়না ও বাড়ির চারটে ছাগলও বিক্রি করেছি। আবার পেঁয়াজ ফলিয়ে এ বারের মতো অবস্থা হলে কী হবে জানি না!’’

◷ ১১:১২ পূর্বাহ্ন ৷ মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৫, ২০১৯ আন্তর্জাতিক