‘১৫-২০ টাকা মজুরী বৃদ্ধি পোশাক শ্রমিকদের সাথে প্রতারণা’

১২:৪১ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৫, ২০১৯ আলোচিত

রাজু আহমেদ, ষ্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশ গার্মেন্ট শ্রমিক সংহতি নামক একটি সংগঠন অভিযোগ করেছে, গার্মেন্ট শ্রমিকদের মজুরি সমন্বয়ের নামে মাত্র ১৫-২০ টাকা বৃদ্ধি করে তাদের সাথে চরম প্রতারণা করা হয়েছে। সোমবার সংগঠনটির পক্ষ থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে এই অভিযোগ করা হয়েছে।

বিবৃতিতে সুমন মিয়া নামে এক পোশাক শ্রমিককে হত্যা এবং শ্রমিকদের ওপর পুলিশ ও মাস্তানদের নির্যাতনের বিচারসহ গ্রেফতারকৃত সকল পোশাক শ্রমিকদের অবিলম্বে মুক্তির দাবি করা হয়েছে।

বাংলাদেশ গার্মেন্ট শ্রমিক সংহতির সভাপতি তাসলিমা আখতার, সাধারণ সম্পাদক জুলহাসনাইন বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম শামা এক যুক্ত বিবৃতিতে ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে মজুরি সমন্বয়কে শ্রমিকদের সঙ্গে চরম প্রতারণার শামিল হিসেবে উল্লেখ করেন।

তাদের অভিযোগে বলা হয়েছে – বেতন ভাতা বৃদ্ধিসহ মজুরী সমন্বয়ের দাবিতে শ্রমিক আন্দোলনের প্রেক্ষিতে ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে প্রহসন মুলকভাবে শ্রমিকদের ধোকা দিয়ে যে মজুরি সমন্বয় করা হয়েছে তা অন্যায্য ও অগ্রহণযোগ্য। মজুরি সমন্বয়ের নামে ১৫ টাকা (৬ষ্ঠ গ্রেডে) ২০ টাকা (৫ম গ্রেডে) বা ১০২ ও ২৫৫ টাকা (যথাক্রমে ৪র্থ ও ৩য় গ্রেডে) বৃদ্ধির বিষয়টি হাস্যকর ও লোক দেখানো। এই সিদ্ধান্তের ভেতর দিয়ে শ্রমিকদের জীবনমানের কোনো তারতম্য ঘটবে না। বরং এই বৃদ্ধির ভেতর দিয়ে বাংলাদেশের অর্থনীতির মূল চালিকা শক্তি ৪৪ লাখ গার্মেন্ট শ্রমিকের আন্দোলনকে এবং শ্রমিকদেরকে অসম্মানিত করা হলো। এ সময় সংগঠনটির দেয়া বিবৃতিতে অবিলম্বে সব গ্রেডে সমান হারে মজুরি বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন তারা।