সংবাদ শিরোনাম

বাংলাদেশকে তিস্তার পানি না দেয়ার সাফ ঘোষণা মমতারশ্বশুরবাড়ি যাওয়ার আগে কাঁদতে কাঁদতেই মারাই গেলেন কনে!এবার ‘টোকাই’ হয়ে আসছেন হিরো আলমহাসপাতালের ওষুধ পাচারের ছবি তোলায় ১০ সংবাদকর্মী তালাবদ্ধবঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ স্বাধীনতার প্রকৃত ঘোষণা: প্রধানমন্ত্রীনির্মাণকাজ শেষের আগেই ‘মডেল মসজিদের’ বিভিন্ন স্থানে ফাটলআহসানউল্লাহ মাস্টারসহ ১০ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান পাচ্ছেন স্বাধীনতা পুরস্কারঐতিহাসিক ৭ মার্চের সুবর্ণ জয়ন্তী: টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে মানুষের ঢলচট্টগ্রাম কারাগারে হাজতি নিখোঁজ, জেলার-ডেপুটি জেলার প্রত্যাহারদেবীগঞ্জে ট্রাক্টরের চাপায় মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

  • আজ ২৩শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

হিলি সীমান্ত এলাকায় বাড়ছে সরিষা চাষ, ফলনের আশায় কৃষক

১:৪৯ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৫, ২০১৯ রংপুর

আব্দুল আজিজ, হিলি (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: বোনাস ফসল হিসেবে সীমান্তবর্তী এলাকায় হিলিতে দিন দিন বাড়ছে সরিষার চাষ।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সরিষা হলুদ ফুলে ঢেকে আছে সেখানকার বিস্তীর্ণ মাঠ। সরিষা জমি পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন সীমান্ত এলাকার কৃষকরা। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় ভালো ফলনের আশায় কৃষক।

রোপা আমনের ফসল ঘরে তোলার পর সীমান্ত এলাকার মাঠের জমিগুলো পতিত থাকতো। বর্তমানে সরকারি বিভিন্ন উদ্যোগেের কারণে উপজেলা কৃষি অফিসের সহযোগিতায় বিনামূল্যে সার, বীজ প্রদান করায় এই এলাকায় বোনাস ফসল হিসেবে সরিষা চাষ বাড়ছে।

ইতোমধ্যে বেশ কিছু জমিতে ভালো ও উন্নত জাতের সরিষা দানা বেঁধে ফেলেছে। আগাম জাতের ধান কাটার পর আবার ওই জমিতে সরিষা চাষ করে লাভবান হচ্ছেন কৃষকরা।

হাকিমপুর কৃষি অফিসার শামীমা নাজনীন জানান, এবার হাকিমপুর উপজেলার ৩টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার ৮৩০ হেক্টর জমিতে বিভিন্ন জাতের সরিষা চাষ হয়েছে। যা গত বছরের তুলনায় অনেক বেশি।

তিনি আরও বলেন, এই এলাকার চাষীরা এটাকে বোনাস ফসল হিসেবে গ্রহণ করেছে। আমরা কৃষকদের সার্বক্ষণিক বিভিন্ন পরামর্শ ও সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছি। আশা রাখি, এবার সরিষার বাম্পার ফলন পাবে উপজেলার কৃষকরা।