বাঁচানো গেল না শেখ সেলিমের নাতিকে

⏱ | সোমবার, এপ্রিল ২২, ২০১৯ 📁 আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর :: শ্রীলংকায় বোমা হামলায় আওয়ামী লীগ নেতা শেখ ফজলুল করিম সেলিমের ৮ বছর বয়সী নাতি জায়ান চৌধুরী নিহত হয়েছেন। এবং তার জামাতা মশিউল হক চৌধুরী প্রিন্স আহত হয়েছেন। এ তথ্য জানিয়েছে ​শ্রীলঙ্কাস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন​।

মশিউল হক চৌধুরী প্রিন্স আহত হয়ে কলম্বোর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। রোববার রাতে পরিবারের একটি সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সাংসদ শেখ সেলিম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফুপাতো ভাই। সেলিমের মেয়ে শেখ আমেনা সুলতানা সোনিয়া তার স্বামী মশিউল হক চৌধুরী প্রিন্স ও দুই ছেলেকে নিয়ে শ্রীলঙ্কায় গেছেন বেড়াতে। তারা উঠেছিলেন কলম্বোর পাঁচ তারকা একটি হোটেলে।

রবিবার ইস্টার সানডের প্রার্থনার মধ্যে তিনটি গির্জা ও কয়েকটি হোটেলে বোমা হামলা হয়। এর মধ্যে ওই হোটেলের নিচতলার রেস্তোরাঁয় সকালের নাস্তা করতে গিয়েছিলেন প্রিন্স ও তার বড় ছেলে জায়ান চৌধুরী। ছোট ছেলে জোহানকে নিয়ে শেখ সোনিয়া ওই সময় হোটেলের কক্ষে ছিলেন।

শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলায় শেখ সেলিমের নাতি জায়ান নিহত, জামাতা আহত

বোমা হামলায় পর মশিউল হক চৌধুরী আহত হন এবং জায়ানকে অনেকক্ষণ পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে হাসপাতালে তার মৃতদেহ পাওয়া যায়।

এর আগে সন্ধ্যা পর্যন্ত নিখোঁজ ছিল শিশু জায়ান। রাতে শিশুটির মৃত্যুর খবর পায় পরিবারের সদস্যরা। এই খবরে তারা কলম্বোর উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন বলে একাধিক গণমাধ্যমে জানিয়েছে।

রোববার ইস্টার সানডের প্রার্থনার মধ্যে শ্রীলংকার রাজধানী কলম্বো গির্জা ও হোটেল মিলিয়ে ৮টি স্থানে বোমা হামলার ঘটনা ঘটে।

এদিকে ব্রুণাই সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ হামলার নিন্দা জানিয়ে বলেন, শ্রীলঙ্কার আটটি স্থানে সংঘটিত বোমা হামলায় বহু লোক নিহত ও আহত হয়েছে। আরেকটি দুঃখজনক ঘটনা হলো শেখ ফজলুল করিম সেলিমের মেয়ের পরিবার শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলার শিকার হয়েছে। আমি এই বর্বরোচিত ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই।