বাড়িতে আটকে রেখে থেতলে দেওয়া হলো যুবলীগ নেতার শরীর!

❏ মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩, ২০১৯ খুলনা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: সাতক্ষীরার কালিগঞ্জের দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সহ-সভাপতি ও সোনাতলা গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে সাইদুর রহমান ময়নাকে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বাড়িতে আটকে রেখে সমগ্র শরীর থেতলে দেওয়া হয়েছে। গতকাল রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সাইদুর রহমান ময়না বলেন, গোবিন্দকাটিতে আমার একটি মৎস্য ঘের আছে। একই গ্রামের মৃত জহর আলীর ছেলে আশরাফদের বাড়ির সামনের রাস্তা দিয়ে আমি আমার ঘেওে প্রতিনিয়ত যাতায়াত করি। গতকালও আমি রাত ৯টার দিকে আমার ঘেরের উদ্দেশ্যে রওনা হই।

আশরাফের বাড়ির সামনে যেতে না যেতেই আশরাফ, আশরাফের ভাই জাহাঙ্গীর, সবুর গাজীর ছেলে রাসেল, এয়ুব আলীর ছেলে রাজ্জাক, মন্টু, মিন্টু, কাইয়ুম, কালাম আমাকে জোর করে তাদের বাড়িতে ধরে নিয়ে যায়। তাদের নিয়ে যায় রাত ১২ টা পর্যন্ত আমাকে আটকে রেখে প্রচন্ড মারপিট করে। আমার সমগ্র শরীর লাঠি দিয়ে পিটিয়ে থেতলে দিয়েছে।

এরপর স্থানীয়রা বিষয়টি বুঝতে পেরে আমার বাবাকে খবর দেয়। আমার বাবা স্থানীয়দের সহায়তায় আমাকে উদ্ধার করে প্রথমে কালিগঞ্জ হাসপাতালে এবং পরে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্র্তি করে।

কালিগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাসান হাফিজুর রহমান বলেন, এ ব্যাপারে একটি লিখিত এজাহার পেয়েছি। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।