সংবাদ শিরোনাম

পণ্যবাহী ট্রাক-মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-১খালেদার জিয়ার শারীরিক অবস্থার উন্নতি নেই, হয়নি বিদেশ যাওয়ার সিদ্ধান্তওপ্রধানমন্ত্রী কোরআন-সুন্নাহর বাইরে কিছু করেন না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীমির্জাপুরে গণহত্যা দিবস উপলক্ষে মোমবাতি প্রজ্জ্বলনশনিবার থেকে ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনাস্পুটনিক-৫ টিকা একে-৪৭’র মতো নির্ভরযোগ্য: পুতিনডোপটেস্টো রিপোর্ট: স্পিডবোটের চালক শাহ আলম মাদকাসক্তচাঁদপুরে ঐতিহাসিক বড় মসজিদে লক্ষাধিক মুসল্লির সালাতে ‘জুমাতুল বিদা’ রাঙামাটিতে ডিবির অভিযানে ইয়াবাসহ দুই চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী আটক! আনসার ব্যাটালিয়ান সদস্যদের সঙ্গে স্থানীয়দের সংঘর্ষ : নারীসহ ৯জন আহত

  • আজ ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সকল শহর রক্ষা বেড়ি বাঁধ রক্ষার প্রতিশ্রুতি দিলেন পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী

৮:৩৮ অপরাহ্ন | মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩, ২০১৯ ঢাকা
panimontri

রাজবাড়ী প্রতিনিধি: পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক বলেছেন রাজবাড়ীসহ সকল শহর রক্ষা বেড়ি বাঁধ রক্ষা করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। নদী শাসন করতে যা যা করা প্রয়োজন এই সরকার তা করবে। এই সরকারের উপড়ে আস্থা রাখতে রাজবাড়ীবাসীর প্রতি আহবান জানান মন্ত্রী।

২২ এপ্রিল মঙ্গলবার রাজবাড়ী শহর রক্ষা বাধের ফেইজ-২ প্রকল্প কাজ পরিদর্শন কালে এসব কথা বলেন মন্ত্রী। তিনি আরো বলেন, রাজবাড়ী শহর ও শহরের মানুষের রক্ষা আমরাই করবো। বর্তমান সরকার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগনের জন্য কাজ করতে আমাদেরকে মন্ত্রী বানিয়েছেন। আমাদের কাজ হলো নেত্রীকে চিন্তা মুক্ত রাখা। শহর রক্ষা বাধ ফেইজ-২ প্রকল্পটি ২০১৮ সালে শুরু হয়েছে এই কাজ ২০২০ সালে জুন মাসের মধ্যে সমাপ্ত করার কথা রয়েছে। কাজের গতি বাড়াতে আগামী বৃহস্পতিবার থেকে আরো দুটি মেশিন যোগ করা হবে। সামনে বর্ষা মৌসুমে শহর রক্ষা বেড়িবাঁধ ভাঙ্গনের হাত থেকে বাচতে এরই মধ্যে ব্যপক পরিমান জিও ব্যগ ফেলা হয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় স্প্রিড র্বোডে পাটুরায়া ঘাট থেকে পদ্মা নদীর ডান তীরের ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করে রাজবাড়ী সদর উপজেলার উড়াকান্দা এসে পৌছায়। সেখানে রাজবাড়ী শহর রক্ষা বেড়িবাধের কাজ পরির্দশন করেন মন্ত্রী।

এসময় মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, রাজবাড়ী শহর রক্ষা বাঁধের কাজ ধীর গতিতে হচ্ছে। এমন খবর শুনে দেখতে এসেছি। কাজের গতি একটু কম। সামনে বর্ষা মৌসুম। বর্তমানে এখানে প্রতিদিন তিন থেকে সাড়ে তিন হাজার বøক তৈরি করা হয়। এখন সেটি পাঁচ হাজারের বেশি বøক তৈরি করা হবে। আশা করি বর্ষার আগেই নদী শাষনের কাজ অনেকটা শেষ হবে। আর বর্ষা মৌসুমে যাতে রাজবাড়ীতে নদী আর না ভাঙ্গে তার জন্য সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শহর রক্ষাবাধ ফেইজ-২ প্রকল্প পরিদর্শনকালে প্রতিমন্ত্রীর সাথে রাজবাড়ী-১আসনের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক কাজী ইরাদত আলীসহ পানি উন্নয়ন বোর্ড ও নৌবাহিনীর কর্মকর্তার ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, রাজবাড়ী শহর রক্ষা বাধ ফেইজ-২ প্রকল্পটি সাড়ে চার কিলোমিটার এলাকায় স্থায়ীভাবে বাধের কাজ করছে ডিবিএল নামে একটি বেসরকারী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। ৩২৮ কোটি টাকা ব্যয়ে এই কাজটির দেখভালের দায়ীত্বে রয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড ও বাংলাদেশ নৌবাহিনী।