🕓 সংবাদ শিরোনাম

শরীয়তপু‌রে কৃষিঋণ পেতে হয়রানি, ব্যাংকে দালাল চ‌ক্রের দৌরাত্ম্য চর‌মে!স্কটল্যান্ডের সংস‌দে প্রথম বাংলা‌দেশি এমপি নবীগঞ্জের ফয়ছল চৌধুরীসিলেটে চাহিদামতো ইফতারি না দেয়ায় অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে হত্যা!করোনাকালে কিন্ডারগার্টেন ও নন-এমপিও শিক্ষকদের করুণ দশা!ওয়ালটন স্মার্টফোনে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ‘ঈদ সালামি’চাচীর পরকীয়ার কথা জেনে যাওয়ায় ভাতিজাকে নৃসংশ ভাবে খুনকেরাণীগঞ্জে দুই কিশোরীকে গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার-৪চুয়াডাঙ্গায় পুলিশের উপর মাদক কারবারিদের হামলা: এস আইসহ আহত-৫রোজার মহিমায় মুগ্ধ হয়ে ভারতীয় তরুণীর ইসলাম গ্রহণপর্তুগালে সবচেয়ে বড় ঈদ জামাতের অনুমতি

  • আজ রবিবার,২৬ বৈশাখ, ১৪২৮ ৷ ৯ মে, ২০২১, সকাল ১০:৩৩

“বন্ধু ভয়ংকর”! সামান্য চড়ের এমন নির্মম পরিণতি …

❏ শনিবার, এপ্রিল ২৭, ২০১৯ ফিচার
slap-revenge-

সময়ের কণ্ঠস্বর, চট্টগ্রামঃ তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে সহকর্মী বন্ধুর হাতেই নৃশংস খুন হয়েছে দিলীপ নামের এক কিশোর । মাস দুই আগে ভুলবোঝাবুঝির জেরে এক বন্ধু চড় মারে আরেকজনকে আর এই ঘটনাতেই ক্ষিপ্ত হয়ে অন্য দুইবন্ধু হত্যা পরিকল্পনা মাথায় রেখে ঠান্ডা মাথায় খুন করে অন্যবন্ধুকে! আটক কিশোরেরা জানিয়েছে, ঘটনার কথা তাদের ঐ বন্ধু ভুলে গেলেও ভোলেনি তারা।

দির্ঘদিন পরিকল্পনাকরেই ভালো সম্পর্ক তৈরি করে দুজন। এমনকি হত্যার আগমুহুর্ত পর্যন্ত ঐ কিশোরের কোন ধারনাই ছিলোনা কি নির্মম পরিনতির শিকার হতে চলেছে তার দুই বন্ধুর হাতেই ।

ঘটনার রহস্য খুলতেই আতকে উঠেছে পরিচিত সবাই। এমন একটি ঘটনায় কেও কাউকে নৃশংস কায়দায় খুন করতে পারে সে হিসেব মেলাতে পারছেননা কেওই। ঘটনার শিকার হতভাগ্য কিশোর ও তার খুনি সবার বয়সই ১৬/ ১৭ এর মধ্যে।

শুক্রবার দুপুরে চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম শফি উদ্দিনের আদালতে জবানবন্দি দেয় আটক দুই কিশোর। এর আগে গত বৃহস্পতিবার হালিশহর থেকে জীবন ও আরেক আসামি দুর্জয় আচার্যকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। আটক দুই কিশোরের বাড়ি নগরের হালিশহরে।

ঘটনার সুত্রপাত দিনকতক আগে। স্থানীয় এক কারখানায় শ্রমিকের কাজ করতেন ঐ কিশোরেরা। গ্রেপ্তার এক আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে নৃশংস এই খুনের বর্ণনা উঠে আসে।খুনের ঘটনায় আটক জীবন আচার্য নামের কিশোরের লোমহর্ষক জবানবন্দী থেকে জানা যায়, গাজা সেবনের জন্য সহকর্মী বন্ধুর কাছ থেকে ৫০ টাকা ধার নেন তারা দুজন। ধারের টাকা না দেওয়ায় ওই সহকর্মী (খুন হওয়া দিলীপ )তাঁদের চড় মারে। আর এই ঘটনার চরম প্রতিশোধ নিতেই গলায় গামছা পেঁচিয়ে খুন করেন সহকর্মীকে। শুধু খুন করেই থেমে থাকেননি তারা! পুরো ঘটনার প্রমাণ মুছে দিতে ন্শংস কায়দায় লাশ পুড়িয়েও দেয় তারা ।

এর আগে ২১ এপ্রিল রাতে নগরের হালিশহরে ফইল্যাতলি খালপাড় এলাকার একটি পরিত্যক্ত বাড়ি থেকে ১৬ থেকে ১৭ বছর বয়সী এক কিশোরের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। আগুনে তার শরীরের ৯০ ভাগ অংশ পুড়ে যায়। এই ঘটনায় হালিশহর থানায় মামলা করে পুলিশ। পরিচয় শনাক্ত না হওয়ায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে ময়নাতদন্ত শেষে লাশটি আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলামকে হস্তান্তর করা হয়।

চট্টগ্রাম নগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (ডবলমুরিং অঞ্চল) আশিকুর রহমান সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, দুই আসামিকে গ্রেপ্তারের পর আগুনে পোড়া কিশোরের পরিচয় পাওয়া যায়। তার নাম দিলীপ আচার্য। বাড়ি খাগড়াছড়ির লক্ষ্মীছড়িতে। কিশোরটি সীতাকুণ্ডে একটি কারখানায় কাজ করত। তার সঙ্গে দুই আসামিও সেখানে শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন। নিহত কিশোরের মা-বাবা কেউ নেই।

আসামীদের স্বীকারোক্তির বরাত দিয়ে আশিকুর রহমান জানান, প্রায় দুই মাস আগে গাঁজা খেতে কিশোর দিলীপের কাছ থেকে ৫০ টাকা ধার নেন তার সহকর্মী জীবন ও দুর্জয়। ওই টাকা চাওয়ায় দিলীপকে তাঁরা গালাগাল করেন। একপর্যায়ে দিলীপ তাঁদের চড় মারে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে জীবন ও দুর্জয় খুনের পরিকল্পনা করেন। পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ১৮ এপ্রিল দিলীপকে বেড়ানোর কথা বলে সীতাকুণ্ড থেকে হালিশহর নিয়ে আসেন। এরপর নাথপাড়ায় একটি জঙ্গলের ভেতর বেড়াতে যাবার কথা বলে কৌশলে নিয়ে গিয়ে গলায় গামছা পেঁচিয়ে খুন করেন। পরে লাশটি বস্তাবন্দী করে পার্শ্ববর্তী একটি খালে ফেলার জন্য রাখেন। কিন্তু নিজেরা ধরা পড়ার আশঙ্কায় লাশটি খালে ফেলেননি।

পুলিশ কর্মকর্তা আশিকুর রহমান সময়ের কণ্ঠস্বরকে আরও বলেন, ঘটনার দিন রাতেই বস্তাবন্দী লাশটি একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে নিয়ে যান তাঁরা। সীমানা দেয়ালের ওপর দিয়ে এটি ভেতরে ফেলা হয়। পরে আগুন দিয়ে লাশটি পুড়ে তাঁরা চলে যান। তিন দিন পর দুর্গন্ধ বের হলে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দেন।

কমিশনার (ডবলমুরিং অঞ্চল) আশিকুর রহমান বলেন, জবানবন্দি দেওয়ার পর দুই আসামিকে আদালতের নির্দেশে কারাগারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।