টাঙ্গাইলে ছাত্রীদের ইভটিজিং করায় যুবককে গণধোলাই

⏱ | শনিবার, এপ্রিল ২৭, ২০১৯ 📁 ঢাকা

মোল্লা তোফাজ্জল, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি- গতকিছুদিন ধরে বেশ নিয়ম করেই ছাত্রীদের আসা যাওয়ার পথে কুরুচিপুর্ন কথা অঙ্গভঙ্গি/ইভটিজিং চালিয়ে আসছিলো যুবক!

প্রথমদিকে ছাত্রীরা ভেবেছিলো দু একদিনে হয়তো ঠিক হয়ে যাবে,
কিন্তু নাহ, থামছিলোনা কিছুতেই! বরং উতসাহ বেড়েছিলো যুবকের– অবশেষে উপায়ন্তর না পেয়ে যুবকের অশ্লীল আচরণের দৌরাত্ম কমাতে হলো গণধোলাইয়ের মাধ্যমেই ।

টাঙ্গাইল সরকারি সা’দত বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের ইভটিজিং করায় রতন মিয়া (৩৬) নামের এক যুবককে গণধোলাই দিয়েছে স্থানীয় এলাকাবাসি।

শনিবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। রতন করটিয়া ইউনিয়নের মাদারজানি গ্রামের কালু মিয়ার ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে রতন মিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের যাওয়ার আসার পথে দাড়িয়ে থেকে কুরুতিপূর্ণ কথাবার্তা বলে আসছিল । এতে ছাত্রীরা প্রতিবাদ করলে তাদের বিভিন্নভাবে ভয়ভিতি দেখাতো  রতন।

এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার সকালে একইভাবে রতন বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার পথে কয়েকজন ছাত্রীদের কুরুচিপূর্ণ কথা বলে। এসময় ওই ছাত্রীরা বিশ্ববিদ্যালয়ে তাদের সহপাঠিদের জানায়।

পরে শিক্ষার্থীরা স্থানীয় লোকজনের সহযোগিতায় রতনকে আটক করে গণধোলাই দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ রতনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।

টাঙ্গাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সায়েদুর রহমান জানান, তদন্ত করে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
মোল্লা তোফাজ্জল