🕓 সংবাদ শিরোনাম

খেলার আগে মাঠে ফিলিস্তিনের পতাকা ওড়ালেন কুড়িগ্রামের ক্রিকেটারেরাপাঁচ ঘণ্টা আটকে রেখে থানায় নেওয়া হলো প্রথম আলোর রোজিনা ইসলামকেকর্মস্থলে ফিরতে গাদাগাদি করে রাজধানীমুখী লাখো মানুষশেরপুরে পৃথক ঘটনায় একদিনে ৭ জনের মৃত্যুএক বিয়ে করে দ্বিতীয় বিয়ের জন্যে বড়যাত্রীসহ খুলনা গেল যুবক!আমার মৃত্যুর জন্য রনি দায়ী! চিরকুট লিখে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যাইসরাইলীয় আগ্রাসনের  বিরুদ্ধে ইসলামী বিশ্বের নিন্দার নেতৃত্বে সৌদি আরবত্রিশালে সড়ক দূর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যুতে নিহতের বাড়ীতে চলছে শোকের মাতমকলাপাড়ায় এক সন্তানের জননীর মরদেহ উদ্ধারটাঙ্গাইলে কৃষক শুকুর মাহমুদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার-১

  • আজ মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৮ মে, ২০২১ ৷

তীব্র গরমে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারে কম্বল বিতরণ করে সমালোচনার মুখে ইউএনও


❏ শনিবার, এপ্রিল ২৭, ২০১৯ খুলনা

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি: তীব্র দাবদাহ আর ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন। আর এই গরমে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারে কম্বল বিতরণ করে সমালোচনার মুখে পড়লেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও)। গত শুক্রবার কুষ্টিয়ায় হরিপুর উপজেলায় এই ঘটনাটি ঘটে। কম্বল বিতরনের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার হলে তা মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়। সেই সাথে ইউএনও’র বিরুদ্ধে তীব্র সমালোচনার ঝড় ওঠে।

জানা গেছে, কুষ্টিয়ার হরিপুরে অগ্নিকাণ্ডে দিনমজুর জাকিরুলসহ ২ টি পরিবারের সবকিছু আগুনে পুড়ে যায়। এ ঘটনা জানতে পেরে ক্ষতিগ্রস্তদের দেখতে ছুটে যান হরিপুরের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জুবায়ের হোসেন চৌধুরী। সেখানে গিয়ে ত্রাণ শাখা থেকে টিন ও অর্থসহায়তার ব্যবস্থা থাকলেও তা বাদ দিয়ে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন তিনি।

তীব্র গরমে কম্বল বিতরণে সমালোচনার বিষয়ে ইউএনও মো. জুবায়ের হোসেন চৌধুরীর কাছে জানতে চাইলে বলেন, ‘বিষয়টি বাড়িয়ে বলা হচ্ছে।’তবে আগুনে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ হিসেবে কম্বল দেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেন তিনি।

ইউএনও জুবায়ের আরো বলেন, ‘ইউএনও’র একটা ত্রাণ শাখা আছে, সেখানে কম্বল ছাড়া আর কিছু থাকে না। গতবারের শীতকালের কিছু কম্বল রয়ে গিয়েছিল, আমি সেইখান থেকেই কিছু কম্বল নিয়ে ছুটে গিয়েছি। এ ছাড়া টিন এবং টাকার যে ব্যাপারটা রয়েছে সে বিষয়ে ডিসি সাহেবকে ইতিমধ্যে জানিয়েছি। কম্বল ছাড়া টাকা ও টিন দেওয়া হয়, তবে সেটা এখন জেলা প্রশাসন থেকে দেওয়া হয়। নগদ অর্থ এবং কম্বল ছাড়া অন্য কোনো সাহায্যের ব্যবস্থা নাই। তাছাড়া আজ কালকের মধ্যেই জেলা প্রশাসক মহোদয়ের পক্ষ থেকে তাদের টিন এবং অর্থ সাহায্য দেওয়া হবে।’