চাকরের পরকীয়ার টানে উধাও `ভাগ্নি’কে খুঁজতে এসে গণধর্ষণের শিকার মামী!


❏ শনিবার, এপ্রিল ২৭, ২০১৯ রংপুর

সময়ের কণ্ঠস্বর: পরকীয়া প্রেমের টানে স্বামী-সন্তানকে ফেলে বাড়ির চাকরের সাথে পালিয়ে যাওয়া ভাগ্নিকে খুঁজতে এসে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন ৩২ বছর বয়সী মামী। নির্যাতনের শিকার ওই নারী ৪ সন্তানের জননী।

কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলার কড়াই বরিশাল নামক প্রত্যন্ত চরগ্রামে বুধবার (২৪ এপ্রিল) রাত ১০ টার দিকে এই ঘটনাটি ঘটে। ৪ জন মিলে ওই নারীকে গণধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় রঞ্জু মিয়া (৫২) ও জেলহক (৪৫) নামের দুই ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে চিলমারী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

আজ শুক্রবার দুপুরে কুড়িগ্রামের পুলিশ সুপার মেহেদুল করিম এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, টাঙ্গাইলের কাকুয়া গ্রামের এক গৃহবধূ পরকীয়া প্রেমের টানে স্বামী ও ৭ বছর বয়সী সন্তানকে ফেলে বাড়ির চাকর হারুনের সাথে কয়েকদিন আগে উধাও হয়। চাকর হারুনের বাড়ি দিনাজপুরে।

তারা পালিয়ে কড়াই বরিশাল গ্রামে এসে আশ্রয় নিয়েছে খবর পেয়ে সেখানে গেলে কৌশলে রঞ্জু মিয়া ও জেল হক মাঝিসহ ৪ জন ধর্ষণ করেন মামীকে।