🕓 সংবাদ শিরোনাম

কারাগারে বাড়তি নিরাপত্তায় বাবুল আক্তারসাংবাদিক রোজিনাকে হয়রানি ও হেনস্থার প্রতিবাদে রাঙামাটি প্রেসক্লাবের মানববন্ধনসাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে নির্যাতনের প্রতিবাদে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের মানববন্ধনঝালকাঠিতে জমি নিয়ে বিরোধে কৃষককে কুপিয়ে হত্যা,আটক-২মাত্র ২০ ঘন্টায় ১০ লক্ষ দর্শক পেল“ তাকে ভালোবাসা বলে” নাটকটিবিয়ের কথা বলে প্রেমিকাকে তুলে নিয়ে রাতভর ধর্ষণভারতে করোনায় একদিনে মারা গেলেন ৫০ চিকিৎসকদেশে বিশেষ অভিযান চালাবে ইন্টারপোলসাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে নেওয়া হলো আদালতেতুমুল সমালোচনার মুখে ‘জেরুজালেম প্রেয়ার টিম’পেজ সরিয়ে নিল ফেসবুক কর্তৃপক্ষ

  • আজ মঙ্গলবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৮ মে, ২০২১ ৷

নাবালিকা গৃহবধু মুক্তির খুনিদের আটক করতে পারেনি পুলিশ!

nabalika
❏ রবিবার, এপ্রিল ২৮, ২০১৯ রাজশাহী

ওবায়দুল ইসলাম রবি, রাজশাহী প্রতিনিধি- হত্যার তিনদিন অতিবাহিত হলেও খুনি অভিযুক্তদের আটক করতে পারেনি রাজশাহীর বাগমারা থানা পুলিশ। নাবালিকা গৃহবধু মুক্তি খাতুনের (১৭) হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার না করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে নিহত মুক্তি খাতুনের পরিবার।

নিহতের বাবা আব্দুর রহিম অভিযোগ করে বলেন, গত ২০১৬ সালে একই উপজেলার বড়বিহানালী গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে সোহেল রানা তার মেয়ে মুক্তি খাতুনকে ভবানীগঞ্জ শহীদ সেকেন্দার মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয় থেকে পালিয়ে নিয়ে যায় এবং বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। কিন্ত বিয়ের কিছু দিন পর থেকে জামাই সোহেল রানাসহ তার পরিবারের লোকজন যৌতুকের জন্য মুক্তি খাতুনের উপর চাপ সৃষ্টি করে শারীরিক ও মানুষিক ভাবে নির্যাতন করতে শুরু করে।

গত ২৫ এপ্রিল গভির রাতে জামাই সোহেল রানা তার বউ মুক্তি খাতুনকে পূনরায় যৌতুকের বিষয়ে চাপ দেয়। মুক্তি খাতুনকে শারীরিক ভাবে নির্যাতন করে। নির্যাতন সয়তে নাপেরে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে মুক্তি। পরে বড়বিহানালী বাজারের এক পল্লী চিকিৎসকের কাছে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে। এবিষয়ে নিহতে বাবা আব্দুর রহিম এলাকার লোকজনকে নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। নিহতের বাবা বাদী হয়ে মেয়ের জামাই সোহেল রানাসহ চারজনকে আসামী করে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। তবে এখন পর্যন্ত কোন আসামী গ্রেফতার করতে পারেনি থানা পুলিশ।

বাঘমাড়া থানার ওসি আতাউর রহমান গনমাধ্যমকে জানান, থানা পুলিশ নিহত গৃহবধু মুক্তির খুনিদের আটকের প্রচেষ্টা করছে। অতিশিগ্রই হত্যার সাথে জড়িতদের আটক করে যথাযথ বিচাররের ব্যবস্থা করা হবে। বাদির অভিযোগ সাপেেেক্ষই পুলিশ ঘটনার দিন থেকে কাজ করে যাচ্ছে।