🕓 সংবাদ শিরোনাম
  • আজ বুধবার, ২৯ বৈশাখ, ১৪২৮ ৷ ১২ মে, ২০২১ ৷

এক বছরে ৩৫৬ ধর্ষণের শিকার, মৃত্যু ২২ জনের

❏ রবিবার, এপ্রিল ২৮, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- বাংলাদেশে শিশুদের প্রতি সহিংসতার মাত্রা উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে বলে জানিয়েছে বেসরকারি সংস্থা মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন। সংস্থাটির তথ্য অনুযায়ী, ২০১৮ সালে সারাদেশে ধর্ষণ, যৌন নির্যাতন, হত্যা ও শারীরিক নির্যাতনের কারণে মারা গেছে ২৭১টি শিশু।

এছাড়াও ৪৩৩ টি শিশু ধর্ষণসহ যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে। এর মধ্যে শুধু ধর্ষণের শিকার ৩৫৬ জন। ধর্ষিতা হয়ে মারা গেছে ২২ টি শিশু এবং যৌন নির্যাতনের ফলে মারা গেছে একজন। এছাড়াও ধর্ষণের চেষ্টা চালানো হয়েছিল আরও ৫৩ টি শিশুর ওপর।

রোববার (২৮ এপ্রিল) জাতীয় প্রেসক্লাবে তফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে ‘বাংলাদেশ শিশু পরিস্থিতি ২০১৮’ সংবাদ বিশ্লেষণ অনুষ্ঠানে এসব তথ্য জানান ‘মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনে’র নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম। ছয়টি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত সংবাদের তথ্য বিশ্লেষণ করে এই এই পরিসংখ্যান তৈরি করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ধর্ষণের শিকার এসব শিশুদের মধ্যে বেশিরভাগের বয়স ৭ থেকে ১২ বছর। ১৩ থেকে ১৮ বছর বয়সীরা যৌন নির্যাতনের শিকার হয় বেশি। পুরুষ শিক্ষকের কাছে বেশি যৌন নির্যাতনের শিকার হয় তারা।

সভায় শাহীন আনাম জানান, ২০১৮ সালে শুধুমাত্র শিক্ষকদের দারা ১২৯ শিশু নানাভাবে নির্যাতিত হয়েছে। শিক্ষকদের দ্বারা শারীরিকভাবে নির্যাতিত হয়েছে ৭০ জন এবং শিশু যৌন হয়রানির শিকার হয়েছে ৩৩ জন।

এছাড়াও ২০১৮ সালে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক শিশু অর্থাৎ ৪১৪ টি শিশু সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে ১৩৩ জন, ২০১৭ সালে এই নিহতের সংখ্যা ছিল ৩৭৫ জন।