• আজ রবিবার, ২ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ ৷ ১৬ মে, ২০২১ ৷

মাশরাফি ভাইয়ের জন্য হলেও যেন বিশেষ কিছু করতে পারি: মুশফিক


❏ রবিবার, এপ্রিল ২৮, ২০১৯ খেলা

স্পোর্টস আপডেট ডেস্ক- ২০০৭ সালে প্রথম বিশ্বকাপ খেলেছেন মুশফিকুর রহিম। মাঝে খেলেছেন বিশ্বকাপের আরও দুটি টুর্নামেন্ট। এবার ইংল্যান্ডে খেলতে যাচ্ছেন ক্যারিয়ারের চতুর্থ বিশ্বকাপ। এ সময়ে বয়স বাড়ার সঙ্গে দলে তাঁর দায়িত্বও বেড়েছে। ইংল্যান্ডে মুশফিক এই দায়িত্বটুকু নিয়ে নিজেকে নিংড়ে দিতে চান।

বিশ্বকাপ সামনে রেখে বাংলাদেশ দল আজ রোববার অনুশীলন করেছে শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে। এদিন দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে এসে মুশফিক মনে করিয়ে দিলেন সেই পুরোনো কথাই—শুধু বিশ্বকাপ নয় জাতীয় দলের হয়ে যে কোনো ম্যাচই ক্রিকেটারদের জন্য গর্বের মুহূর্ত। আর টুর্নামেন্ট যদি হয় বিশ্বকাপ তাহলে ভালো করার আলাদা প্রেরণা তো থাকেই।

দলে তিন-চারজন ক্রিকেটার আছেন যাঁরা এবার ক্যারিয়ারের চতুর্থ বিশ্বকাপ খেলবেন। সবাই এই বিশ্বকাপ স্মরণীয় করে রাখতেই চান। মুশফিক ছাড়াও তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান ও মাশরাফি বিন মুর্তজার জন্য এটি হতে যাচ্ছে চতুর্থ বিশ্বকাপ।

এবারের বিশ্বকাপেও টাইগারদের অধিনায়কত্ব করবেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। এই বিশ্বকাপই তার ক্যারিয়ারের শেষ বিশ্বকাপ! না, লাল সবুজের ক্রিকেটের দিন বদলের দলপতি একথা এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে জানাননি। তবে বিভিন্ন আলোচনায় আকারে ইঙ্গিতে তিনি তা স্পষ্ট করেছেন।

কাজেই বিদায় বেলায় প্রিয় অধিনায়ক, যিনি দলের সবাইকে আগলে রেখেছেন তাকে দু’হাত ভরে দিতে প্রস্তুত গোটা টাইগার কন্টিনজেন্ট। বিশ্বকাপে আইকনিক দলপতির জন্য বিষেশ কিছু করতে চাইছেন তার সতীর্থরা।

সংবাদ সম্মেলনে মুশফিক জানান, ‘মনে হয় এটাই একসাথে হয়তোবা আমাদের শেষ বিশ্বকাপও হতে পারে। মাশরাফি ভাই যদি এর পরে আর বিশ্বকাপ খেলতে না পারেন এটাই আমাদের এক সঙ্গে শেষ বিশ্বকাপ হতে পারে। তো আমরা সবাই চাইবো মাশরাফি ভাইয়ের জন্য হলেও যেন বিশেষ কিছু করতে পারি। যেটা কি না স্মরণীয় হতে পারে। আমার মনে হয় এটা অবশ্যই অনেক বড় সুযোগ। একই সাথে আমাদের সুযোগও অনেক বেশি আছে।’