• আজ বৃহস্পতিবার, ৩০ বৈশাখ, ১৪২৮ ৷ ১৩ মে, ২০২১ ৷

নড়াইলের সেই ৪ চিকিৎসকের শাস্তি স্থগিত


❏ সোমবার, এপ্রিল ২৯, ২০১৯ আলোচিত বাংলাদেশ

সময়ের কণ্ঠস্বর, নড়াইল- নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় ওয়ানডে ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার অনুরোধে নড়াইল সদর হাসপাতালে অনুপস্থিত থেকে ওএসডি (অন স্পেশাল ডিউটি) হওয়া সেই চার চিকিৎসকের শাস্তি স্থগিত হয়েছে।

সোমবার (২৯ এপ্রিল) দুপুরে মন্ত্রণালয় থেকে মোবাইল ফোনে মৌখিকভাবে বিষয়টি সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আ ফ ম মশিউর রহমান বাবুকে জানানো হয়।

ডাক্তার মশিউর রহমান বাবু বলেন, তাদের আপাতত নড়াইল সদর হাসপাতালেই কর্মরত থাকার জন্য মন্ত্রণালয় থেকে মৌখিকভাবে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে ধারণা করছি অল্প সময়ের মধ্যে লিখিতভাবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানানো হবে।

তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি সংসদ সদস্য মাশরাফির ঝটিকা অভিযানের পর চার চিকিৎসকের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ নেয় মন্ত্রণালয়। পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়টি মাশরাফি জানার পর তিনি নিজেই মন্ত্রণালয়ে অনুরোধ করেছেন তাদের (চার চিকিৎসককে) স্ব স্ব দায়িত্বে বহাল রাখার জন্য।

২৫ এপ্রিল নড়াইল সদর হাসপাতলে ঝটিকা অভিযানে যান নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মুর্তজা। সেখানে বিনা ছুটিতে চারজন ডাক্তার অনুউপস্থিত পান। পরে ওই চার ডাক্তারকে ওএসডি করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। একইসঙ্গে চার চিকিৎসককে কারণ দর্শানোর নোটিশও দেওয়া হয়।

ওএস‌ডি চিকিৎসকরা হলেন- নড়াইল সদর হাসপাতালের সার্জারির সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. মো. আখতার হোসেন, কার্ডিওলজির জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা. মো. শওকত আলী ও ডা. মো. রবিউল আলম এবং মেডিকেল অফিসার ডা. এ এসএম সায়েম।

ওএস‌ডি চিকিৎসকদের সাত দিনের মধ্যে বদলিকৃত কর্মস্থলে যোগদান অন্যথায় পরবর্তী কর্মস্থল হতে তিনি তাৎক্ষণিকভাবে অবমুক্ত হবেন বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছিল।

তাদের ওএসডি করার প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, পরবর্তী আদেশ না দেওয়া পর্যন্ত তাদের স্বাস্থ্য অধিদফতর, মহাখালীতে ওএসডি করা হয়েছে। আদেশ জারির সাত কর্মদিবসের মধ্যে নতুন কর্মস্থলে যোগদান করতে হবে। তা না হলে এই কর্মস্থল থেকে তারা তাৎক্ষণিক অবমুক্ত হবেন।