প্রতিশোধের হুমকি দিয়ে পাঁচ বছর পর আইএস প্রধানের ভিডিও প্রকাশ

১১:১৫ পূর্বাহ্ন | মঙ্গলবার, এপ্রিল ৩০, ২০১৯ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) ‘শীর্ষ’ নেতা আবু বকর আল-বাগদাদি প্রায় পাঁচ বছর পর ভিডিও প্রকাশ করে জনসমক্ষে এলেন।

শ্রীলংকায় সিরিজ হামলার দায় স্বীকার ও প্রতিশোধ নেয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করে বাগদাদির ওই ভিডিও ইতিমধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

এর আগে সর্বশেষ ২০১৪ সালে ইরাকের মসুল থেকে ইরাক ও সিরিয়ার কিছু অংশজুড়ে খেলাফত প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দিয়ে ভিডিও প্রকাশ করেছিলেন এ আইএস নেতা। খবর বিবিসি ও রয়টার্সের।

ইরাকে জন্ম নেয়া এই আইএস নেতার আসল নাম ইব্রাহিম আওয়াদ ইব্রাহিম আল বাদরি। গত পাঁচ বছরে তার কোনো ভিডিওবার্তা প্রকাশিত না হলেও গত বছরের আগস্টে তার একটি অডিওবার্তা প্রকাশিত হয়েছিল।

সোমবার প্রকাশিত ভিডিওতে জঙ্গিগোষ্ঠীটির আওতাধীন বিভিন্ন অঞ্চল হারানোর প্রতিশোধ নেয়ার হুমকি দেন আবু বকর আল বাগদাদি। এতে শ্রীলংকায় হামলার দায়ও স্বীকার করা হয়। ১৮ মিনিটের ভিডিওটিতে বাগদাদি সিরিয়ার বাঘুজে আইএসের পরাজয় স্বীকার করে নিয়েই প্রতিশোধের এ হুমকি দেন।

উল্লেখ্য, সিরিয়ার বাঘুজেই ছিল আইএসের সর্বশেষ ঘাঁটি। সদ্য প্রকাশিত ভিডিওতে আল বাগদাদি বলেন, বাঘুজের যুদ্ধ শেষ হলেও আরও অনেক কিছু বাকি আছে।

এদিকে ভিডিওটি ঠিক কবে ও কোথায় ধারণ করা হয়েছে, সে সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি। যদিও আল ফুরকান মিডিয়ার দাবি, এটি এপ্রিলে ধারণ করা।

ভিডিওর শুরুতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করা হয়। ভিডিওতে আবু বকর আল-বাগদাদিকে বসে থাকতে দেখা যায়। এ সময় তাঁর আশপাশে আইএসের কিছু কর্মীকে দেখা যায় মুখোশ পরিহিত অবস্থায়।

এর আগে বাগদাদি সম্পর্কে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন রকমের গুজব উঠছে। কখনও দাবি করা হয়েছে তিনি মারা গেছেন, কখনও বলা হয়েছে তিনি ধরা পড়েছেন। কখনও দাবি করা হয়েছে বাগদাদি মারাত্মকভাবে আহত। সিরীয় বাহিনীর হাতে আটক হওয়া বা তাকে বিষ খাইয়ে দেওয়ার গুজবও শোনা গেছে।

২০১৭ সালের জুনে বাগদাদির মৃত্যুর খবরকে ‘শতভাগ নিশ্চিত’ দাবি করেছিলেন রাশিয়ার কর্মকর্তারা। তবে এর এক বছর একটি অডিও বার্তা দিয়ে বাগদাদি জানিয়েছিলেন তিনি বেঁচে আছেন। তারপর আর কোনও বার্তা সামনে আসতে দেখা যায়নি।