নববধূকে সিগারেটের ছ্যাঁকা দেয়ায় শ্বশুড় গ্রেফতার

❏ মঙ্গলবার, এপ্রিল ৩০, ২০১৯ ঢাকা

মোল্লা তোফাজ্জল, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:টাঙ্গাইলের বাসাইলে নববধূকে সিগারেটের আগুনে ছ্যাঁকা দেয়ার ঘটনায় মামলার আসামী শ্বশুড় আব্দুল আজিজকে (৬০) গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। মঙ্গলবার ভোরে বাসাইল উপজেলার হাবলা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আব্দুল আজিজ এ মামলার ৩ নং আসামী ছিলেন। এর আগে এ ঘটনায় ডিবি পুলিশ ওই নববধূও স্বামী এবং পুলিশ শ্বাশুড়িকে গ্রেফতার করে।

এ ব্যাপারে জেলা গোয়ান্দা (ডিবি) দক্ষিনের ওসি শ্যামল কুমার দত্ত বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। পরে দুপুরের দিকে গ্রেফতারকৃত আব্দুল আজিজকে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলায় যৌতুকের জন্য এক নববধূকে বিড়ির আগুনের ছ্যাকা দেয়ার ঘটনায় গত ২৫ এপ্রিল নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ৩ জনের নাম উল্লেখ করে বাসাইল থানায় মামলা দায়ের করা হয়। সেই মামলায় এর আগে গতকাল সোমবার তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রধান আসামী ওই গৃহবধূর স্বামীকে বাসাইল উপজেলার করাতিপাড়া এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে পুলিশ ওই গৃহবধূর শ্বাশুড়িকে গ্রেফতার করে।

উল্লেখ্য, খাদিজার বাবা আবুল হোসেন জানিয়েছিলেন, ‘২২দিন আগে সজিবের সঙ্গে খাদিজার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই সজিব ও খাদিজার মধ্যে মনোমালিন্য চলছিল। বিভিন্ন সময় খাদিজার স্বামী যৌতুকের দাবিতে তাকে মারধর করতো। এরপর ২৩ এপ্রিল রাতে খাদিজাকে হাত-পা বেঁধে তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে সিগারেট দিয়ে আগুনে ছ্যাঁকা দেয়। পরে ২৪ এপ্রিল সকালে বিষয়টি আমাকে জানালে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসি। মেয়েটির শরীরের বিভিন্ন স্থানে আগুনে দগ্ধ হওয়ায় কান্নাকাটি করছিল। এর পর ২৫ এপ্রিল দুপুরে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেছি। ’প্রায় দুই বছর আগে খাদিজার আরেকটি বিয়ে হয়েছিল। এনিয়ে খাদিজার দ্বিতীয় বিয়ে।